পাকিস্তানি ইউটিউবার ভির-এর হিন্দু বিদ্বেষমূলক ফেক ভিডিও পোস্ট

0

Last Updated on

পাকিস্তানি ইউটিউবার ভির| প্রোফাইলে ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় আড়াই লাখ | চলতি মাসের প্রথমে একটি ভিডিও পোস্ট করে তার ইউটিউব চ্যানেলে | সেখানে দেখা যায় এক পাকিস্তানি যে অ্যাঙ্কর ভিডিওটি উপস্থাপনা করছেন,তাতে হিন্দু বিদ্বেষমূলক কথা বলা হয়েছে | যে ঘটনার কথা উল্লেখ করছে অ্যাঙ্কার তা হল,ভারতের মাটিতে এক মহিলা খ্রীষ্ট ধর্মাবলম্বী পুলিশ অফিসারকে নাকি একদল লোক তাড়া করছে | নগ্ন করে তাকে মারধরের কথাও বলা হয় সেখানে | হিন্দু কর্তৃক খ্রীষ্টানদের উপর অত্যাচারের কথা বলে বিদ্বেষ ছড়ানোর প্রচেষ্টা করা হয় ওই ভিডিওটিতে | ভিডিওটি ভাইরাল করার আবেদনও রয়েছে | ইতিমধ্যেই ভিডিওটি ৪৭০০০ মানুষ দেখেছেন ও তার মধ্যে ৪০০০মানুষ লাইকও করেছেন | ভিডিওটিতে #দিয়ে যে কথা গুলো লেখা হয়েছে তাও হিন্দুদের নীচু করে দেখানোর জন্যই |

ভিডিওটি উৎস সন্ধানে এক প্রথম সারির জাতীয় সংবাদ মাধ্যম নামে | তাতে দেখা যায়,ওখানে যে ভিডিওটি দেখানো হয়েছে ,তা বিহারের একটি ঘটনা | কিন্তু সেখানে যে মহিলাকে খ্রীষ্টান ধর্মীবলম্বী বলা হয়েছে তা সর্বৈব ভুল | তাছাড়া ওই মহিলা পুলিশ আধিকারিকও নন | ওই একই ভিডিও দিয়ে ভারতে সাম্প্রদায়িক সদ্ভাব বিঘ্ন ঘটানোর আরেকটি চেষ্টা হয়েছিল ২০১৮সালে | সে সময়ও সোশ্যালি ভাইরাল করার আবেদন ছিল খবরটি | তখন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম খবরটি করার পর আলোড়ন পরে যায় |

এবারেও ভারতেও ওই ভিডিওটি ব্যাপক ভাইরাল হওয়ায় তা নিয়েও হইচই পড়ে যায় | দেখা যায়,ওই ইউটিউবার ভির পাকিস্তানের রাওয়ালপিন্ডির বাসিন্দা | সেই প্রোফাইল থেকে একাধিক ফেক ভিডিও প্রকাশ করে ধর্মীয় বিভেদ তৈরি করার প্রবণতা লক্ষ্য করা যায় | সেই ভিডিও এখানে বেশ কিছু সোশ্যাল মিডিয়া সাইট ফান টুন-এ আপলোড করা হয় |

গুলি বন্দুক ছাড়াও প্রতি নিয়ত ভারতের সার্বভৌমত্ব নষ্টের চেষ্টায় যে রাষ্ট্র সতত সক্রিয়,তাদের সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা কী করে ফলপ্রসূ হবে বলে মনে করছেন ফারকু আবদুল্লার মত রাজনৈতিকরা,সে প্রশ্নই করছেন দেশবাসী |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here