“মুসলিমদের বেশি সংখ্যক সন্তান জন্ম দেওয়া ধর্মীয় কারণে নয়,তাদের পাশবিক প্রবণতার প্রতিফলন”- সুরিন্দর সিং

0

Last Updated on

এদেশে সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়কে নিয়ে মন্তব্য করে ফের বিতর্কে বালিয়ার বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দর সিংহ | তাঁর বক্তব্য, একেক একেক জন মুসলিমের ৫০টি স্ত্রী ও ১০৫০টি সন্তানের যে প্রবণতা দেখা যায়,তা ধর্মের কারণে নয়, বরং তা এক পাশবিক প্রবৃত্তি | সংবাদ মাধ্যমকে চিকিতসকদের এক অনুষ্ঠানে এসে তাঁর মত ব্যক্ত করেন এই বিধায়ক |

বরাবরাই বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য বিখ্যাত এই ব্যক্তি এর আগেও চিকিতসকেরা গরবীদের পরিষেবা না দেওযা প্রসঙ্গে তাঁদেরকে রাক্ষস ও সাংবাদিকদের দালাল বলে কটাক্ষ করে ছিলেন | সরকারি আধিকারিকদের সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করেন এর আগে | তাদের তুলনা করা হয় পতিতাদের সঙ্গে | এমনকি তার মন্তব্যে টেনে এনেছেন রামকেও | তাঁর মতে, সমাজের যা অবস্থা তাতে ভগবান রাম এসেও ধর্ষণ ঠেকাতে পারবে না বলে একসময় মত প্রকাশ করেছিলেন এই বিধায়ক | নানা সময় এই মন্তব্যগুলি নিয়ে দেশ জোড়া বিতর্কের পর কিছু দিন চুপ ছিলেন সুরেন্দর |

জনসংখ্যা বৃদ্ধির কথা মাথায় রেখে কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রীয় গিরিরাজ সিং বলেছিলেন ,ভারতের মত দেশে দুইয়ের বেশি সন্তান হলে তাকে বের করে দেওয়া উচিত | মূলত এদেশে বসবাসকারী সংখ্যালঘু মুসলিমদের জন্যই মোট জনসংখ্যার বৃদ্ধি হচ্ছে বলে মত তাঁর | সে থেকেই করা এই বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে সমালোচিত হতে হয় এই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে |

স্বাধ্বী প্রজ্ঞাপারমিতা থেকে সুরিন্দর সিং বিজেপি নির্বাচনে জয়ী জন প্রতিনিধিদের বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য একাধিকবার বিরোধীদের আক্রমণের মুখোমুখি হয়েছে শাসক বিজেপি | দলীয় অনুশাসনের বাইরে গিয়ে এই সকল বিতর্কিত মন্তব্যে যে শাসকের অস্বস্তি বাড়ে তা নিয়ে সন্দেহের কোন অবকাশ নেই |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here