‘সাগর অন্বেষিকা’ খোঁজ দেবে সমু্দ্রের অজানা খাজানার

0

Last Updated on

প্রথমে রেলের কোচ তৈরি করলেও দিনে দিনে নিজেদের আমূল পরিবর্তন ঘটিয়েছে ১৯৯৮সালে তৈরি এই সংস্থাটি | টিটাগড় ওয়াগন লিমিটেড | ২০১৯সালে পুণের মহা মেট্রোর ১০০রও বেশি অ্যালুমিনিয়াম কোচ তৈরির বরাত পাওয়ার পাশাপাশি জাহাজ তৈরির ব্যবসায় এই সংস্থার হাতেখড়িও হয় | ২০১৭ সালে প্রথম ভারতীয় নৌবাহিনীর জাহাজ তৈরির জন্য প্রথম চুক্তিবদ্ধ হয় এই সংস্থা | এই সংস্থার দ্বিতীয় অধ্যায় শুরু হয় ২০১৫ সালে | সেখানে একের পর এক জাহাজ তৈরি করে দেশকে তাক লাগিয়ে দেয় টিটাগড় ফিরেমা | ইতালিকর একটি সংস্থার ৯০শতাংশ শেয়ার কিনে তাদের প্রযুক্তিকে কাজে লাগাতে সুরু করে এরা |

সেই এগিয়ে যাওয়ার অব্.যাহত রাখতেই এবার গবেষণায় সাহায্যকারী এক অত্যাধুনিক জাহাজ তৈরি করে শনিবার আরও একটি জাহাজ ভাসালো এই সংস্থা | কেন্দ্রীয় সরকারের ভূবিজ্ঞান মন্ত্রকের অধীন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ওশন টেকনোলজির তত্বাবধানে এই জাহাজটি নির্মাণ করেছে টিটাগড় ওয়াগন্স । সাগর অন্বেষিকা নামে এই জাহাজটি শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে টিটাগড়ে গঙ্গায় ভাসানো হয় । এর আগে এই সংস্থার পক্ষ থেকে সাগর তারা নামে আরও একটি জাহাজ তৈরি করা হয়েছিল |

আনুষ্ঠানিকভাবে এই জাহাজটির উদ্বোধন করেন ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রাক্তন রেয়ার অ্যাডমিরাল ও গার্ডেনরিচ শিপবিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডের চেয়ার চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর বিপিন কুমার সাক্সেনা-র পত্নী শ্রীমতি সাক্সেনা । এদিন অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে শ্রী সাকসেনা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় ভূবিজ্ঞান মন্ত্রকের প্রকল্প আধিকারিক বি,কে ঠাকুর, টিটাগর ওয়াগনসের কার্যনির্বাহী চেয়ারম্যান জগদীশ প্রসাদ চৌধুরী প্রমুখ । প্রযুক্তি ও বিজ্ঞান মনস্ক প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নকে এভাবেই বাস্তবে রূপ দেবে এই সংস্থা আশা বিশিষ্টদের |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here