কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সমস্ত সুবিধে থেকে আজও বঞ্চিত মৃত বিজেপি কর্মী অজয় মান্ডির পরিবার

0

Last Updated on

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বারবার বিভিন্ন সভাতে বলেছেন উন্নয়নের ক্ষেত্রে রাজনীতিকে অগ্রাধিকার না দিতে | বলেছেন সবাইকে সমভাবে দেখতে | তবে কি তাঁর নীচু স্তরের কর্মীরা সেই নির্দেশ অমান্য করছেন ? নাকি তিনি যা বলছেন সেটাও রাজনীতির উর্ধ্বে নয় ? কেন এই প্রশ্ন ? কারণ প্রকৃত নিঃস্বদের এখনও প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘর না পাওয়ার অভিযোগ উঠছে ভুরি ভুরি | পিকে-র পরামর্শতে শুদ্ধিকরণ শুরু করলেও দলের মধ্যে জমে থাকা পাঁক যে সরেনি তা বোঝা যায় এখনও গ্রামে-গঞ্জে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার নমুনা দেখে |

মাটির বাড়ি | একতলা | টিনের চাল | বাড়িতে ঢোকার রাস্তা বর্ষার জলে কাদার চোটে প্রায় ধুয়ে মুছে সাফ | ঘরে ঢোকা বেরোনোই দায় | সেখানে থাকেন বৃদ্ধা মা ও তার অসুস্থ ছেলে | না তাতে অবাক হওয়ার নয় | এমন অসহায় দশা বাংলার অনেক ঘরেই রয়েছে | কিন্তু সব রকম ভাবে সরকারি অনুগ্রহের দাবিদার হয়েও এদের কিছুতেই কিছু মিলছে না | কারণ এই বৃদ্ধা হলেন খুন হয়ে যাওয়া বিজেপি কর্মী অজয় মান্ডির মা | দীর্ঘদিন ভাই অসুস্থ হওয়ায় রোজগার প্রায় নেই বললেই চলে | এদের বাস বরসিংহ গ্রাম পঞ্চায়েতের ১৬৩নং বুথের অন্তর্গত | খোঁজ নিয়ে জানা গেল, বিজেপি করার অপরাধে এদের প্রাপ্য প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার অন্তর্গত ঘর,শৌচালয়, রান্নার গ্যাস কিছুই মেলেনি | এক ছেলে মারা যাওয়ার পর তা নিয়ে তদ্বির করারও কেউ নেই | ঘাটাল বিজেপির পক্ষ থেকে একটি প্রতিনিধি দল গিয়ে সরেজমিনে দেখতে পৌঁছেছিলেন সেখানে | সব দেখে শুনে ফিরে গিয়ে দলের উচ্চ নেতৃত্বের কাছে দরবার করবেন এই পরিবারটির প্রতি ন্যায় বিচারের |

লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন যে মহামানব ইশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগর মহাশয়ের মূর্তি ভাঙা নিয়ে রাজ্য তথা দেশের রাজনীতি তোলপাড় হয়ে গেল, সেই ইশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগরের জন্মস্থানের রাস্তার এমন বেহাল দশা কেন সে প্রশ্ন কিন্তু উঠতে শুরু করেছে | মনীষীদের জন্ম ও মৃত্যু ঘটা করে পালন করা সরকারের কাছ থেকে এটুকু উন্নয়ন আশা করতে পারেন না বিদ্যাসাগরের উত্তরসূরীরা ,প্রশ্ন করছে গোটা গ্রামই |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here