নৈহাটি বিস্ফোরণ কাণ্ডের পর রাজ্যবাসীর নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন দিলীপের কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপের দাবি

0
dilip Ghosh urged central to take steps regarding security of people

Last Updated on

নৈহাটির বাজি কারখানার বিস্ফোরণের প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারকে একহাত নিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ । শ্রীরামপুরে বিজেপির অভিনন্দন যাত্রায় বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ কোন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে দিয়ে তদন্ত করার দাবি জানান। তৃণমূল কংগ্রেসের সরাসরি নাম না নিলেও তিনি বলেন, ” সর্ষের মধ্যে ভূত রয়েছে। “সরকারকে একাধিক বার বলার পরও যখন রাজ্যের নানা স্থানে ঘটে চলা বিস্ফোরণকে গুরুত্ব দিতে নারাজ,তখন বুঝতে হবে সরকার ঘনিষ্ঠরা কেউ যুক্ত আছে ।

আরো পড়ুন :চাকদায় যুবকদের রক্ত ঝরিয়ে প্রতিবাদ এন আর সির বিরুদ্ধে,তাজ্জব সভ্য সমাজের নাগরিকেরা

দিলীপ ঘোষ এদিন দাবি করেন,নৈহাটির যে বাজি কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনি ঘটে তা আগেও নানা কারণে বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু প্রতিবারই তা আবার খোলে যায়। আর তা হয় কারণ এ কারখানার মালিক সক্রিয় তৃণমূল কর্মী বলে চিহ্ণিত করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। দিলীপ ঘোষ শুক্রবার শ্রীরামপুরের মাহেশে দলের উদ্যোগে আয়োজিত সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে অভিনন্দন যাত্রায় অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে একথা বলেন। প্রসঙ্গত শনিবার রাজ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কলকাতায় আসছেন। শনিবার প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর সাক্ষাতের কথাও উঠে আসছে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে এসে দিলীপবাবু আশা প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যবাসীর নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চয়ই গুরুত্ব দিয়ে দেখবেন ।

আরো পড়ুন :রাজ্যপালকে অবজ্ঞার চিঠি যাদবপুরের পড়ুয়াদের,চুপ কেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী

তিনি বলেন,পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তবর্তী রাজ্য হওয়ার জন্য উগ্ৰপন্থীরা ঢুকছে। মুখ্যমন্ত্রীর নৈহাটির বাজি বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের রাজ্য সরকার ক্ষতিপূরণের ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী সবেতেই ক্ষতিপূরণ দিয়ে থাকেন। ” এদিনের অভিনন্দন যাত্রা শেষ হয় শেওড়াফুলি বাজার এলাকায়। অভিনন্দন যাত্রায় অংশ নেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা মুকুল রায় সহ প্রচুর কর্মী সমর্থকও ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here