মুখ্যমন্ত্রীকে ‘শালগ্রাম শিলা’ বলে কটাক্ষ বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসুর

0

Last Updated on

বসিরহাটের বিজেপি সাংসদ প্রার্থী সায়ন্তন বসু শেষ লোকসভা নির্বাচনে জিততে পারেননি ঠিকই, কিন্তু বারবার সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছে তাঁর নাম বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য | সেই পরস্পরা অব্যাহত | হেরেছেন বলে তার লোকসভা কেন্দ্রকে ভুলে যাননি | বরং সময়-অসময় পাশে পেয়েছেন তাঁদের নেতাকে, বলছেন সেখানকার স্থানীয় বিজেপি কর্মীরা | কিন্তু আবারও বেফাঁস মন্তব্য করে সংবাদ শিরোনামে রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু |

বসিরহাটে এখনও বিজেপি কর্মী ও কার্যকর্তারা ঘরছাড়া রয়েছেন | তাঁদের পরিবারের পাশে দাঁড়াতেই এই বিজেপি নেতা মঙ্গলবার সেখানে যান | মনোবল বাড়ানোর জন্য কর্মীদের নিয়ে একটি ছোট সভাও করেন তিনি | পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ক্ষোভ উগরে দেন শাসক দলের বিরুদ্ধে | তিনি বলেন, বিজেপি কর্মীদের মিথ্যা ফৌজদারি মামলা দিয়ে মনোবল ভাঙার চেষ্টা করা হচ্ছে | কিন্তু পাশাপাশি এও বলেন বিজেপি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করলেও কেউ চোখ দেখালে সেই চোখ যেমন তারা গেলে দিতে পারেন, তেমনই আঙুল তুললে সে আঙুলও ভেঙে গুঁড়িয়ে দিতে পারেন |

বিতর্কের এখানেই শেষ নয় | সরকারি আইনজীবী কর্তৃক কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চ্যাটার্জির এজলাস বয়কট করা সিদ্ধান্তের পিছনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত আছেন বলে মন্তব্য করেন বিজেপির এই প্রথম সারির নেতা | তিনি বলেন,মুখ্যমন্ত্রী কিছুই মানেনা | সংবিধান,বিচারব্যবস্থা কিছুই না | এই প্রসঙ্গে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে শালগ্রাম শিলা বলে কটাক্ষ করেন |
বিতর্কিত মন্তব্য করা অবশ্য সায়ন্তন বসুর কাছে নতুন কিছু নয় | লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন বুথ লুট করতে এলে লুটেরাদের পায়ে নয়,কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনীকে বুকে গুলি করতে পরামর্শ দিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন | উত্তরপ্রদেশের মত অপরাধীদের এনকাউন্টার করার ভাবনাো ছিল বিজেপির এই নেতার |

এসব মন্তব্য করে ইতিমধ্যেই ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত হয়েছেন সায়ন্তনবাবু | কিন্তু তাতে কি এসে ? ওসবের তোয়াক্কা না করেই তিনি সাবলীল ভাবে একের পর এক বিতর্কের জন্ম দিয়ে যান |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here