‘প্রতীকী’ করোনা পাশবালিশকে জড়িয়েই মুখ্যমন্ত্রীর অপসারণ চেয়ে হাওড়ায় বিক্ষোভে বিজেপি যুব মোর্চা

0
BJYM protests at Howrah, demanding removal of CM

Last Updated on

পরিযায়ী তরজা অব্যাহত রাজ্যে। পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যু নিয়ে শাসক বিরোধী তরজার মাঝেই বেফাঁস মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর। এই ইস্যু যে সামাল দিতে জেরবার সরকার তা শুক্রবার ফুটে উঠেছিল মুখ্যমন্ত্রীর কথায়। সেই কথার রেশ ধরেই শনিবার দুপুরে হাওড়ায় অভিনব প্রতিবাদ কর্মসূচি নেয় বিজেপি। বিজেপি যুব মোর্চা কর্মীরা হাওড়ায় এসডিও অফিসের গেটের সামনে ‘করোনা পাশবালিশ’ নিয়ে রাস্তায় শুয়ে প্রতিবাদ করে। শ্লোগান দেয়। বিক্ষোভ দেখায়। মুখ্যমন্ত্রীর অপসারণের দাবি করেন তারা । পরে পুলিশ এসে যুব মোর্চা কর্মীদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয় ।

আরো পড়ুন :রাজ্যে আমফানের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণের জন্য শীঘ্রই কেন্দ্রীয় দল পাঠাবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

বিজেপি যুব মোর্চার হাওড়া সদরের সাধারণ সম্পাদক অমিত বসু বলেন, “আমরা যুব মোর্চার কর্মীরা এখানে সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং বজায় রেখেই দলের কর্মসূচি পালন করছিলাম। তাও পুলিশ এসে বলপূর্বক আমাদের সরিয়ে দেয়। গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিচ্ছেন পুলিশ সব জায়গায়। ” রাজ্যের প্রশাসকের কথায় অবশ্য শুধু বিজেপি নয়,সমালোচনায় মুখর হয়েছে রাজ্যের অন্য বিরোধী সিপিআইএম ও কংগ্রেসও। করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ব্য‍র্থতা ও হতাশা ফুটে উঠেছে এর মধ্য দিয়েই মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতেও ।

আরো পড়ুন :বেহাল রাজ্যের দশা ফেরাতে আরও সেনা নামানোর দরবার প্রধানমন্ত্রীকে সাংসদ অধীর চৌধুরির,মানুষের দুর্ভোগে পথে মান্নান

প্রসঙ্গত শুক্রবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে দেশের রেড জোন থেকে পরিযায়ী পাঠানো নিয়ে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে মুখ্যমন্ত্র বলেন, আপ্রাণ চেষ্টা করেও করোনা পুরোপুরি আটকানো ক্রমশ কঠিন হয়ে উঠছে! কারণ রেড জোন থেকে ওই শ্রমিকেরা আসছেন ঝাঁকে ঝাঁকে। ওইদিন মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেছিলেন, “এখন আর উপায় নেই। সবাইকে নিয়েই থাকতে হবে। করোনাকে নিয়ে ঘুমোন। করোনাকে পাশবালিশ করে নিন। ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। নিয়ন্ত্রণের চেষ্টাও করেছি। কিন্তু সব আমার হাতে নেই।” তারপরেই সব মহলে এই মন্তব্যকে ঘিরে আওয়াজ ওঠে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here