বিমল গুরুং ও রোশন গিরিকে ‘অপরাধী’ ঘোষণা কলকাতা হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চের

0

Last Updated on

দার্জিলিং পৌরসভা হাতছাড়া হওয়ার ভয়ে নাকি প্রশাসক বসিয়েছিলেন রাজ্য সরকার | বিরোধীদের এই জল্পনার মাধেই বিমল গুরুংপন্থীদের জন্য আরেকটি খারাপ খবর দেওয়া হল রাজ্য সরকারের তরফ থেকেই | সোমবার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে বিমল গুরুং ও রোশন গিরিকে ‘প্রোক্লেম অফেন্ডার’ বা ‘অপরাধী’ বলে ঘোষণা করল প্রশাসন | তাঁদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা থাকায় এই রায় দেন জলপাইগুড়িস্থিত কলকাতা হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চ | অর্থাৎ তাঁর বিরুদ্ধে কোন ওয়ারেন্ট ছাড়াই দেশের যে কোন জায়গা থেকে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করতে পারে | আদালতের এই নোটিশ জনসাধারণের জ্ঞাতার্থে লাগিয়ে দেওয়া হল দার্জিলিঙের লোকালয়ে | রাজ্য পুলিশের সিনিয়র এক আধিকারিক এই নোটিশের ব্যাখ্যাও করে দেন পাহাড়বাসীর প্রশ্নের উত্তরে | এই নোটিশ লাগানো হয় বিমল গুরুঙের বাড়ি চকবাজার এলাকাতেও | ২০১৭ সাল থেকে একাধিক মামলায় অভিযুক্ত বিমল গুরুং ও রোশন গিরি | সেক্ষেত্রে তাদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ঘোষণা করার যে নির্দেশ চলতি বছরের ২২শে মার্চ দেওয়া হয়েছে তার উফর ভিত্তি করেই তদন্তকারী আধিকারিক প্রার্থনা করেছিলেন এই দুজনকে ঘোষিত অপরাধী হিসেবে চিহ্ণিত করা জন্য | কারণ পাহাড় ছাড়ার পর থেকে যতগুলি মামলা চলছিল ,তার একটিতেও এই দুই নেতা কেউই আদালতে হাজিরা দেননি | তাই তদন্তকারী আধিকারিকের আবেদনের উপর ভিত্তি করে এই নির্দেশ দেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট |

আদালত এর পাশাপাশি গোর্খা জনমুক্তির এই দুই নেতাকে হলফনামা দিয়ে বলতে বলেন কেন তারা আগাম জামিনের আবেদন করেছেন আদালতে ? আর সরকার পক্ষকে হলফনামা দিয়ে বলতে বলে হয় যে এই দুই নেতার আবেদন তিন সপ্তাহের মধ্যে এই মামলার শুনানির যে আবেদন তাঁরা করেছেন,তার বিরোধীতা কেন করছেন ?
আইনি জটিলতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পাহাড়ের পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কা করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকেরা | তাদের মতে, দুবছর আগে যুযুধান দুই পক্ষ সরকার ও বিমল পন্থীদের মধ্যে হওয়া অশান্তির জেরে যেভাবে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল সব কিছু,তা আর একবার এই রায়কে কেন্দ্র করে হবে না তো ? বিমলপন্থী পৌরপ্রতিনিধিরা বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই সংখ্যালঘু পুরসভায় প্রশাসক বসানোতে সরকার পক্ষ যে লড়াইয়ে নামতে চাইছেন বিমলপন্ণীদের বিরুদ্ধে তা একপ্রকার নিশ্চিত ছিলেন বিমল মনোভাবীরা | এরপর এই ঘোষিত অপরাধী তকমার পর কীভাবে প্রতিক্রিয়া দেন পাহাড়বাসীরা এখন সেটাই দেখার |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here