ভাইপো ভেবেই ক্ষমা করে দিক বাবুল,আর্তি দেবাঞ্জনের মায়ের

0
apoology-of-debanjan's-mother

Last Updated on

ঘরের চেহারায় কোন আতিশয্য নেই | বরং চারদিকে ছড়িয়ে রয়েছে অবিন্যস্ততা | বিছানার উপর অর্ধেক বসে অনবরত কেঁদে চলেছেন এক মা | সকাল সকাল রাইজিং বেঙ্গলের প্রতিনিধি পৌঁছে গিয়েছিলেন বর্ধমানের টাউন স্কুলের পাশের ওই বাড়িটিতে| ওটাই দেবাঞ্জন বল্লভের বাড়ি | আর যিনি কথার ফাঁকে ফাঁকে কেঁদে উঠছেন তিনি দেবাঞ্জনের মা রূপালি বল্লভ | সংবাদমাধ্যমকে দেখেই যিনি বলে উঠলেন,বাবুলকে বোলো আমি তার খুব ভক্ত | না বলার মধ্যে কোন ছল ছিল না | সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ছেলের ছবি যে নিজে প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী | তারপর থেকেই ভাইরাল হয়েছে সেই পোস্ট | তাই দেবাঞ্জন এখন চেনা মুখ | আর সেটিই দুশ্চিন্তার কারণ তাঁর মায়ের কাছে | তিনবছর ধরে যার চিকিৎসা চলছে কলকাতার পিজিতে | খানিক সুস্থ হলেও নিয়মিত তাকে যেতেই হয় হাসপাতালে | আর্থিক অস্বচ্ছলতা না থাকলেও কর্কটের মত মারণ ব্যাধিকে সামলে ছেলেকে কলকাতার মত জায়গায় রেখে পড়াশোনা করানোর যে বেশ কষ্টসাধ্য তার পরিবারের কাছে বলছিলেন রূপালি দেবী |

আরও পড়ুন – সৌজন্যতার নিরীখে আবারও এগিয়ে রইলেন বাবুল সুপ্রিয়

আরও পড়ুন – বারবার ক্যম্পাসে রাজনৈতিক তাণ্ডবের দায় কেন নেবে যাদবপুরের সাধারণ পড়ুয়ারা

কথার মাঝে বারবারই হাতজোড় করছিলেন রূপালি দেবী| আর্তি ছেলেকে ক্ষমা করে দিক মন্ত্রী | ছোট ছোট ছেলে ভুল করে ফেলেছে | তাই নিজের ভাইপো ভেবেই না হয় ক্ষমা করুক তাদের আর্তি তাঁর | কেরিয়ারে যেন কোন দাগ না লাগে বলতে বলতে আবারও কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি | বলেন,ছেলে তার খুবই সহজ-সরল | পড়াশোনা করুক সে | তাই চান তাঁরা | রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ুক দেবাঞ্জন কখনই চায় না তার পরিবার | ছেলের সঙ্গে কথা বলে তাই বলতে চেয়েছেন কাল থেকে | কিন্তু তাতে ছেলে কতটা আশ্বস্ত হল তা কিন্তু বলবে সময় |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here