রাজস্থানে মেয়েদের স্কুলে ৫০ বছরের কম বয়সী পুরুষ শিক্ষক নিয়োগ নয়, ধর্ষণ রদে নয়া ফর্মূলা

0

Last Updated on

চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে রাজস্থানে বেশ কয়েকটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে | যার মধ্যে মার্চ ,জুন সেপ্টেম্বর মাসে ঘটা খবরগুলি নিয়ে তোলপাড় হয় দেশের প্রথম সারির সংবাদপত্রেও | এই ধর্ষণগুলির মধ্যে নাবালিকা নির্যাতিতা থাকায় এই অপরাধগুলি আরও বেশি স্পর্শ কাতর হয়ে পড়ে | নড়েচড়ে বসে রাজস্থানের প্রশাসনও । এই ঘৃণ্য অপরাধ রুখতে সক্রিয় হয় রাজস্থান সরকারও | স্কুল প্রাঙ্গণেও এই অপরাধ পিছু ছাড়ছেনা নাবালিকাদের | অতীতের এই জঘন্য অভিজ্ঞতার থেকে তাই রাজস্থান সরকারের নয়া সিদ্ধান্ত, ৫০ বছরের কম বয়সী পুরুষ শিক্ষক কোন মেয়েদের স্কুলে শিক্ষকতা করতে পারবেন না । শুক্রবার রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী গোবিন্দ ডোটাসরা এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন| যে স্কুলগুলিতে ওই বয়সের কম বয়সী পুরুষ শিক্ষকেরা রয়েছেন, সেখানে মহিলা শিক্ষক তাদের শূন্যস্থান পূরণ করবেন ।

রাজস্থান সরকারের এই প্রস্তাবকে কটাক্ষ করেছেন বহু সমাজবিজ্ঞানী| তাঁদের মতে,এই সিদ্ধান্ত একেবারেই শিশু সুলভ ও বাস্তব বোধ হীন | কারণ বহু যৌন হেনস্থা মূলক অপরাধ প্রবণতা পঞ্চাশোর্ধ্ব পুরুষদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য | সারা দেশে সেই ধরনের অপরাধের নজির কিছু কম নেই বলেই মত তাঁদের | তবে এই সিদ্ধান্ত এখনও কার্যকর করা হয়নি । শিক্ষামন্ত্রী গোবিন্দ ডোটাসরা এই প্রস্তাবের পাশাপাশি আরও বলেন এর জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক শিক্ষিকা প্রয়োজন | সেই সংখ্যক শিক্ষিকা না থাকলে এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত করা সম্ভব নয় |

প্রসঙ্গত রাজস্থানের ৬৮৯১০টি স্কুলে ছেলে ও মেয়ে উভয়ই একসঙ্গে পড়াশোনা করছে । সেখানে গোটা রাজ্যে মাত্র ১১০৯ টি স্কুল শুধু মেয়েদের । এমনকি রাজস্থানের মোট ৩.৮ লক্ষ শিক্ষকের মধ্যে পুরুষ শিক্ষক ও মহিলা শিক্ষকের অনুপাত ২:১,যা খুবই কাছাকাছি | তাই বাড়তি শিক্ষিকার প্রয়োজন মিটিয়ে আদৌ এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা যাবে কিনা তা নিয়ে সন্দিহান রাজস্থান সরকার স্বয়ং |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here