লাভ জিহাদে নারাজ জবাকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ মজদুর রহমান ওরফে পিন্টু সরকারের বিরুদ্ধে

0

Last Updated on

রাজ্যে লাভ জিহাদের বলি | স্থান দক্ষিণ দিনাজপুর | মাত্র ১৯ বছরের জবা রায়কে ধর্ষণ করে খুন করার অভিযোগ উঠল মজিদুর রহমান ওরফে পিন্টু সরকারের বিরুদ্ধে | পেশায় একটি ল্যাবের কর্মচারী মজদুর| দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরের কালোদিঘী রোগমুক্তি সেন্টারে কর্মরত মজিদুরের সঙ্গে পরিচয় হয় জবার | অসুস্থ জবা মজদুর ওরফে পিন্টুর সঙ্গেই আরেকটি সেন্টারে যেত বলে জানায় পরিবার | এভাবেই দিনে দিনে বাড়ে ঘনিষ্ঠতা | ফোনে কথা হতে থাকে | একদিন জবা জানতে পারে যে পিন্টু সরকার বলে যাকে সে জানত প্রকৃত পক্ষে তার নাম মজদুর রহমান এবং সে বিবাহিত | সত্যি জানার পরই সে সম্পর্কের থেকে বেরিয়ে আসতে চায় জবা | তা নিয়ে নানা বিতন্ডা চলত জবা ও অভিযুক্তের মধ্যে ,লিখিতভাবে পুলিশকে সেকথা জানিয়েছেন জবার বাবা বলরাম রায় |

চলতি মাসের ৬ তারিখে জবাকে ফোন করে কালোদিঘীতে দেখা করার জন্য ডাকে মজদুর ওরফে পিন্টু | সেই মত সকাল ৫টা নাগাদ বাড়ি থেকে বের হয় জবা | তারপর অনেক সময় কেটে গেলেও মেয়ে বাড়ি না ফেরায় স্থানীয় থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন জবার পরিবার | তার সূত্র ধরেই পুলিশ কয়েকদিন পর খবর দেয় পাটন পাড়া নদীর ধার থেকে একটি মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে | লোক মুখে খবর পেয়ে থানায় জবার ছবি নিয়ে যান তার পরিবার | সেখানেই মেয়েকে শনাক্ত করেন বাবা | যেভাবে মৃতদেহটি অর্ধ উলঙ্গ অবস্থায় নদীর ধার থেকে উদ্ধার হয়েছে, তাতে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান খুনের আগে ধর্ষণ করা হয়েছে জবাকে | অভিযুক্ত মজদুর রহমান ছাড়াও সেখানে আরও কারো উপস্থিতি রয়েছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে তাও |

খুন ও ধর্ষণে অভিযুক্ত মজদুর অবশ্য ঘটনার পরই গা ঢাকা দিয়েছে | তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়ে শুক্রবার একটি মিছিল সংঘটিত করেছেন সেখানকার সাধারণ মানুষ | সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে গলা ফাটানো কোন বুদ্ধিজীবীকে অবশ্য দেকা যায়নি জবার ন্যায় বিচারের মিছিলে | তবে ইতিমধ্যেই প্রশাসনের বৈষম্যমূলক আচরণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন একদল যুবক | সোশ্যাল মিডিয়ায় | আর তা ট্রেন্ডিং হ্যাশট্যাগ জাস্টিস ফর জবা | সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের দিকে যতটা সহমর্মিতা তার খানিকটাও কি অন্যরা আশা করতে পারেন না ? প্রশ্ন কন্যাহারা পিতার |


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here