টিএমটি দুরবীণ দিয়ে মহাকাশ গবেষণার পাশাপাশি নতুন দিশা মিলবে চিকিৎসা ক্ষেত্রেও

0

Last Updated on

মহাবিশ্বের অমীমাংসিত রহস্য খুঁজে বের করার জন্য নির্মিত ৩০ মিটার দূরবীন (টিএমটি) জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের জন্য যেমন সাহায্য করবে তেমনি বিজ্ঞানীদের দাবী, ভবিষ্যতে চিকিৎসা ক্ষেত্রেও এই টেলিস্কোপ নির্মাণে ব্যবহৃত প্রযুক্তি একটি মাইলফলক হিসাবে প্রমাণিত হবে।

উত্তরাখণ্ড একাডেমি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে আয়োজিত কর্মশালায় আগত জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন যে , ৩০ মিটার দূরবীন নির্মাণে যে প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে তা ভবিষ্যতে চিকিৎসা ক্ষেত্রের আধুনিক যন্ত্রপাতি তৈরিতে সাহায্য করতে পারে। এটির সাহায্যে আপনি সহজেই মানবদেহের ভিতরের খুঁটিনাটি সনাক্ত করতে সক্ষম হবেন।

আরও পড়ুন :ব্ল্যাক হোলের ইতিবৃত্তান্ত জানতে চলচ্চিত্র নির্মাণের ইন্দো-ইংগো অভিনব যৌথ প্রয়াস

টিএমটি-র সহযোগী প্রোগ্রাম পরিচালক ডক্টর রাম প্রকাশ বলেন যে, বর্তমানে চিকিৎসা ক্ষেত্রে এ জাতীয় অনেকগুলি যন্ত্র ব্যবহৃত হচ্ছে, যা একরকম বা অন্য উপায়ে জ্যোতির্বিজ্ঞানের গবেষণার জন্য ডিজাইন করা হয়েছিল, যা সামান্য পরিবর্তন করে চিকিৎসাবিজ্ঞানে সফলভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে ।

বর্তমানে ব্যবহৃত জিপিএস সিস্টেমটি পুরোপুরি মহাকাশের গ্রহনক্ষত্রের উপর নির্ভরশীল। ডঃ রাম প্রকাশ দাবি করেছেন যে টিএমটি দিয়ে পর্যবেক্ষণ করার পরে, জিপিএস সিস্টেম থেকে প্রাপ্ত তথ্য আরও নির্ভুল হবে।

আরও পড়ুন :মহাবিশ্ব, স্টীফেন ডব্লিউ হকিন্স ও কতিপয় জিজ্ঞাসা।

এই দূরবীন সেই সমস্ত গবেষককেও সাহায্য করবে যারা অন্য গ্রহে প্রাণের সন্ধান করছেন। ডঃ জীবন পান্ডে, মূলত পিঠোরাগড়ের বাসিন্দা এবং টিএমটি প্রকল্পে আর্যভট্ট পর্যবেক্ষণ বিজ্ঞান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (এআরআইইএস) প্রতিনিধিত্বকারী, বলেছেন যে টিএমটি দিয়ে পর্যবেক্ষণ করার পরে, বিজ্ঞানীরা মহাবিশ্বকে আরও গভীরভাবে জানতে সক্ষম হবেন। বলা হয়ে থাকে যে এর পরে, অন্য গ্রহের আবিষ্কার (যেখানে জীবনের সম্ভাবনা রয়েছে) বিজ্ঞানীদের প্রথম অগ্রাধিকার হবে।

ডঃ পান্ডে বলেন যে , মহাবিশ্বের বেশিরভাগ গ্রহ নক্ষত্র ইত্যাদি এখনও অবধি টেলিস্কোপে পর্যবেক্ষণ করা যায় না। এই কারণে, বেশিরভাগ অনুসন্ধানগুলি তাদের লক্ষ্যে পৌঁছায় না।

টিএমটি-তে, তারকাদের চারপাশে চলমান বস্তুর অভ্যন্তরীণ গতিবিধি, বায়ুমণ্ডল ইত্যাদি অ্যাডাপটিভ অপটিক্স কৌশলটি ব্যবহার করে নিবিড়ভাবে অধ্যয়ন করা যেতে পারে। এটি জানাতে সক্ষম হবে যে জীবনের প্রয়োজনীয় উপাদানগুলি সেই গ্রহগুলিতে উপস্থিত রয়েছে কিনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here