সৃষ্টিশীল হতে দিবানিদ্রা যান, বলছে গবেষণা

0

Last Updated on

দিবা নিদ্রা নিয়ে বিতর্ক বহুদিনের। রবীন্দ্রনাথ ছিলেন দিবানিদ্রার বিপক্ষে, অন্যদিকে গান্ধীজী ছিলেন পক্ষে। রবীন্দ্রনাথ দিনে ঘুমোতেন না। গান্ধীজীর অভ‍্যেস ছিল দিনে ঘুমানোর। এজন্য গান্ধীজী দিবানিদ্রার পরামর্শ দিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথকে। তবে রবীন্দ্রনাথ দিবানিদ্রা যাননি। লেখালেখি নিয়েই কেটে যেতো তাঁর সকাল-দুপুর।

কিন্তু সাম্প্রতিক অষ্ট্রিয়ার একদল গবেষক দিবানিদ্রার সুফলের কথা উল্লেখ করেছেন। এর আগে দিবানিদ্রায় আসক্ত ব‍্যক্তিরা অলস বলে নিন্দা কুড়িয়েছেন। এবার তাদের কাছে আনন্দ সংবাদ।
অষ্ট্রিয়ার একদল মস্তিষ্ক বিজ্ঞানী দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা চালিয়ে জানাচ্ছেন, দিবানিদ্রাকারীরা মোটেও অলস নন, বরং তারা বেশি মাত্রায় সৃজনশীল। গবেষকরা জানান, দিবানিদ্রার সময় মানুষের মস্তিষ্ক অতিমাত্রায় সতেজ থাকে, অন্যদিকে রাতে ঘুমোনোর সময় তাদের মস্তিষ্ক ঠিক ততটাই নিষ্ক্রিয় থাকে।
তাই এবার থেকে দিবানিদ্রা অভ‍্যেস করে সৃষ্টিশীল মানুষ হয়ে উঠতেই পারেন। তাহলে অলস বলে আপনাকে কেউ নিন্দা করলে আপনি পাল্টা নিজেকে সৃষ্টিশীল হিসেবে প্রমাণ করতে পারবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here