রাজনীতির ছাতার তলায় থেকে খানাকুলে দুষ্কৃতীদের অবাধ তাণ্ডব ,এলাকায় পুলিশি টহল

0

Last Updated on

পুজোর মরসুমের ভিতরেই রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল হুগলির খানাকুল | দলীয় পতাকা ফেলে দেওয়াকে কেন্দ্র করে তৃণমূল বনাম বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল খানাকুল তাঁতিশাল অঞ্চলের মাঝপুর গ্রামে । সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটলেও এলাকা মঙ্গলবারও বেশ থমথমে । এদিন সকালেও উত্তেজনার পারদ চড়ে গ্রামের দুই প্রান্তে উভয় দলের কর্মী সমর্থকেরা জমায়েত হওয়ার ফলে | বেশ কয়েকটি বাড়িতে তান্ডবের খবর পাওয়া যায় | খানাকুল থানা থেকে পুলিশ ওই ঘটনাস্থলে আসে | নতুন করে উত্তেজনা রুখতে বসানো হয় পুলিশ পিকেটিং । চলছে এলাকায় টহলদারিও ।

আরও পড়ুন : নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহের ছবিতে নোংরা লাগানোর অভিযোগে উত্তপ্ত আরামবাগ

ঘটনার সূত্রপাত,মাধপুরে গ্রামে বিজেপির রাজনৈতিক পতাকা কেউ খুলে নিয়ে যায সোমবার | সঙ্গে সঙ্গে গোটা এলাকায় চলে ব্যপক বোমাবাজিও | অভিযোগের আঙুল তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের দিকে | যদিও বোমাবাজির ঘটনা অস্বীকার করে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব | তাঁদের পাল্টা অভিযোগ, বরং বিজেপির সমর্থকেরাই নাকি এলকায় উত্তেজনা করছে । জানা গিয়েছে, উদনা ও বালিপুর মাঝপুর গ্রাম গুলি তাঁতিশাল অঞ্চলের মধ্যে পরে, মাঝপুর গ্রামে রবিবার রাতে কে বা করা একদল দুষ্কৃতী এসে বিজেপির দলীয় পতাকা খুলে নেওয়ার পর থেকেই দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বিস্তীর্ণ এলাকা |

এই ঘটনায় সাধারণ মানুষ পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলছেন । স্থানীয় বিজেপি সমর্থকদের অভিযোগ তৃনমূল নেতা শেখ শামিক ও লাল বাবুর লোকজন এমন তান্ডবের সঙ্গে যুক্ত| এ বিষয়ে যুব তৃণমূল নেতা শামিককে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন,তৃণমূলের কর্মীদের জোর করে বিজেপিতে ঢোকানোর চেষ্টা করছে বিজেপি | বিভিন্ন সময়ে লাগাতার হুমকি ও বিজেপি বোমাবাজির রাজনীতিও শুরু করেছে গেরুয়া শিবিরের নেতারা | তাতে শান্ত তাঁতিশাল অঞ্চলে অতীষ্ঠ এলাকাবাসী ।

আরও পড়ুন : খানাকুলে বিজেপি নেতার বাড়ি ভাঙচুর,নষ্ট সরকারি সম্পত্তি

মাঝপুর এলাকায় বিজেপি নেতা শারাফত খান ও হারাধন খান বলেন, তৃণমূলের অত্যাচারে ইতিমধ্যেই ৬ থেকে ৭ জন বিজেপি কর্মী ওই মাঝপুর গ্রাম ছেড়ে পাশের এলাকায় রয়েছেন । ২১ শে ভোটকে নজরে রেখেই এলাকার দখলের এই লড়াইয়ে দুই দলের উপরেই অসন্তুষ্ট সাধারণ মানুষ | জানাচ্ছেন তারা |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here