নবান্ন অভিযান ঘিরে অশান্তি খন্ডযুদ্ধ পুলিশ-ছাত্রদের, রক্তপাতের দায় কার ?

0

Last Updated on

অনেক যুগ পরে বাম ছাত্র আন্দোলন কলকাতা লাগোয়া রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান কার্যালয়ে | সকলের জন্য কাজ, কম খরচে পড়াশুনা, বেকার ভাতা এবং কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে রাজ্যের শিল্পায়ন সহ একাধিক দাবিতে সিপিআইএমের যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআই ছাত্র সংগঠন এসএফআই সহ বামপন্থী ১২ টি যুব ও ছাত্র সংগঠন শুক্রবার নবান্ন চলোর অভিযানের ডাক দেয় । সিঙ্গুর থেকে পদযাত্রা শুরু করে নবান্নে গিয়ে শেষ হবে এই পদযাত্রা । সেই কর্মসূচি অনুসারে বৃহস্পতিবার রাত থেকেই পদযাত্রা শুরু হয় সিঙ্গুর থেকে ।

সকাল থেকেই হাওড়ার জমা হওয়া ছাত্র-যুবকদের মিছিল মল্লিক ফটকের মূল ব্যারিকেডের সামনে আসার পরই বাধাপ্রাপ্ত হয় মিছিলটি | অশান্তি এড়াতে আগে থেকেই অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন থাকলেও এড়ানো গেল না অশান্তি | প্রাপ্ত ভিডিও থেকে দেখা যায় বাম সংগঠনের ছাত্ররাই সেই ব্যারিকেড ভেঙে ঢওকার চেষ্টা করেন | বিনা প্ররোচনায় পুলিশকে মারতেও দেকা যায় কিচু জায়গায় | যদিও তারা প্রথম দিকে ব্যারিকেড ভাঙার চেষ্টা করলে পুলিশ জলকামানের মাধ্যমে তা ছত্রভঙ্গ করে| আবার বিক্ষিপ্তভাবে ছাত্ররা ব্যারিকেড ভেঙে এগোনোর সুযোগ খুঁজলে তাতে এক সমর্থকের আহত হওয়ার ছবিও ধরা পড়ে | পুলিশ ও ছাত্রদের খন্ডযুদ্ধে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় গোটা এলাকা | দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা |
নবান্নগামী এই মিচিল দেখে কয়েকটি প্রশ্ন উঠে আসছএ | প্রশাসন মিছিল আটকাবে জেনেও ছাত্রদের যে মরিয়া চেষ্টা ওই ব্যারিকেড ভাঙার তাতে যদি কোন অঘটন ঘটত তার দায় কে নিত ? সরকার বা বিরোদীদের পরস্পরের দোষারোপে অমূল্য প্রাণ কি ফিরে আসত? তবে কেন বারবার নিজেদের অস্তিত্ব প্রামণের দায়ে বিপদের মুখে ঠেলে দেওয়া তাজা প্রাণ গুলিকে ? কবে বন্ধ হবে রাজনৈতিক দাদাদের এই সব গেমপ্ল্যান ?


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here