হালিশহর কাঁচড়াপাড়া পৌরসভা নিয়ে মুকুল-অভিষেক রাজনৈতিক তরজা

0

Last Updated on

হালিশহর কাঁচড়াপাড়া পৌরসভার একাধিক পুরপ্রতিনিধির প্রথমে বিজেপিতে যোগদান এবং তার কিছুদিন পরে আবার তাদের ঘাসফুল শিবিরে ফিরে আসা নিয়ে রাজনৈতিক তরজা এখন তুঙ্গে |

শনিবার তৃণমূল কংগ্রেসে‌র রাজ্য যুব সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় মুকুল রায়কে কটাক্ষ করেন | বলেছিলেন, “দলবদলের জন্য যাকে চাণক্য বলা হচ্ছিল, দেখা গেছে সেই চাণক্য আসলে মেড ইন চায়না।” এ প্রসঙ্গে রবিবার সকালে হাওড়ায় এক অনুষ্ঠানে এসে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা মুকুল রায় তাঁকে পাল্টা কটাক্ষ করেন | বলেন, আগে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে জিজ্ঞেস করুন প্রশান্ত কিশোর কে ? উনি কোথায় জন্মেছেন ? এই মুহুর্তে তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতির নাম কি ? তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতির নাম কি এখন প্রসান্ত কিশোর ? এটা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে আগে জিজ্ঞেস করুন ।

এদিন কাঁচরাপাড়া,হালিশহরের ফের দলবদল প্রসঙ্গে তিনি বলেন,যারা ফিরেছেন তাদের বাদ দিয়েই বিজেপি লোকসভা নির্বাচনে জয় লাভ করেছিলেন । তাঁর মতে,বিজেপির একটা রণনীতি আছে । একটা রণকৌশল আছে । তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে ইঙ্গিত করে মুকুল রায় বলেন গুন্ডাগিরি করে বিজেপি দল চালায় না |

বারবার দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক মুকুল রায় দাবি করে আসছেন তৃণমূল কংগ্রেসের বহু বিধায়কই বিজেপি শিবিরে পা বাড়িয়ে রেখেছেন | হাওড়ার অনুষ্ঠানে গিয়ে তিনি আবারও একবার সেই দাবি করেন | তিনি বলেন, ১০৭ জন বিধায়ক তার সঙ্গে যোগাযোগে আছেন । তারা পার্টিতে যোগ দিতে চাইছেন । দলীয় নেতৃত্বের কাছে তা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে । দলীয় নেতৃত্বই এখন বিবেচনা করবে কি করা যাবে ।

এদিন সকালে হাওড়া জেলা বিজেপি শিক্ষক সেলের তরফে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠনের পক্ষ থেকে অনেকে বিজেপিতে যোগদান করেন । এদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন কেন্দ্রীয় নেতা মুকুল রায় । মুকুল রায় ছাড়াও এদিন উপস্থিত ছিলেন হাওড়া সদর বিজেপি সভাপতি সুরজিৎ সাহা, রাজ্য সাধারণ সম্পাদক প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্য কমিটির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু, হাওড়া জেলা শিক্ষক সেলের আহ্বায়ক শেখর মন্ডল, রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় সিং ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here