ফেস্টুন লাগাতে বাধা শাসক দলের,দেওয়াল মোছার পাল্টা অভিযোগ বিরোধীদের বিরুদ্ধে

0

Last Updated on

হাওড়া:নির্বাচনের দিন যতই এগিয়ে আসছে,বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংঘর্ষের প্রবণতাও বাড়ছে|বীরভূমে শাসক দলের পার্টি অফিস ভাঙচুরের ঘটনার কিছুক্ষণের মধ্যেই যুযুধান দুই শিবির,তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষে উত্তেজনা ছড়াল হাওড়ার ব্যাঁটরার বৃন্দাবন মল্লিক লেন এলাকায়।মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনাটি ঘটে।বিজেপির অভিযোগ,তাদের প্রার্থীর সমর্থনে লাগানো ফেস্টুন ও পতাকা খুলে দেয় তৃণমূলের পক্ষ থেকে|তাদেরকে বাধা দিতেই বহিরাগত দুষ্কৃতীরা এসে হামলা চালায় বিজেপি সমর্থকদের ওপর।উল্টোদিকে শাসক শিবিরের কর্মীদের বক্তব্য,বিজেপি কর্মীরাই তাদের প্রার্থীদের সমর্থনে লেখা দেওয়াল মুছে দিয়েছে।বাইরে থেকে লোক এনে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব|আর তাদের কর্মীরা তারই প্রতিবাদ করে রুখে দাঁড়িয়েছে মাত্র।সংঘর্ষ থামাতে রাতেই ব্যাঁটরা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়|
স্থানীয় সূত্রের খবর,দলীয় পতাকা লাগানোকে কেন্দ্র করেই ঝামেলার সূত্রপাত।হাওড়া পুরসভার ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে রাতে বৃন্দাবন মল্লিক লেনে একদল বিজেপি কর্মী দলীয় পতাকা ফেস্টুন লাগানোর সময় বহিরাগত কিছু লোকজন তাতে বাধা দেয় বলে অভিযোগ। বেশ কিছু পতাকা ও ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলা হয়। এরপরেই দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে শুরু হয় সংঘর্ষ।ঘটনাস্থলে পৌঁছয় নির্বাচন কমিশনের ফ্লাইং স্কোয়াডের কর্মীরাও।ঘটনার বিস্তারিত জানানো হয় জেলা নির্বাচন কমিশনের দফতরে|আদতে তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি বলেই পরিচিত এই এলাকা|পৌরসভা থেকে সাংসদ নির্বাচন,সবেতেই এগিয়ে তৃণমূলের ভোটবাক্স|তবে কী খাস গড়ে বিরোধী পতাকা লাগানোর চেষ্টাতেই হল সংঘর্ষ,প্রশ্ন এলাকার সাধারণ মানুষের|যদিও তাদের প্রচারের দেওয়াল মোছার জন্য বিজেপির কর্মীদের বিরুদ্ধে নালিশ করতে শীঘ্রই তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব কমিশনের দারস্থ হতে চলেছেন বলে সূত্রের খবর|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here