দল ও নেত্রীর নামে স্লোগান দিতে না চাওয়ায় কলেজ পড়ুয়াদের আটকে রাখার অভিযোগ টিএমসিপির বিরুদ্ধে

0

Last Updated on

শিক্ষাঙ্গণে রাজনীতি ঢুকলে কি হতে পারে তা দেখেছে দাড়িভিট | কোনো অবস্থাতেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে রাজনীতির বেয়াদপি বরদাস্ত নয় একথা বারবার বলতে শোনা গিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে | কিন্তু এই বলা মনে করা বা কাজের মধ্যে যে বিস্তর ফারাক তা আবারও প্রমাণ হল নবগ্রাম হীরাপাল কলেজের ঘটনায় |

অভিযোগ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জিন্দাবাদ, তৃণমূল কংগ্রেস জিন্দাবাদ না বলায় কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের মারধর ও আটকে রাখল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের একদল ছাত্র | ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ‌ছড়ায় । শুধু পড়ুয়াদের নয় ঘটনায় হস্তক্ষেপ করার অপরাধে মারধর করা হয় কলেজে অধ্যাপকদেরও । অভিযোগ সেই তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ছাত্রদের বিরুদ্ধে |

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপাড়া থানার অন্তর্গত কোন্নগরের নবগ্রাম হীরাপাল কলেজে । অভিযোগ বুধবার এই কলেজের তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সদস্যরা কলেজের কয়েকজন পড়ুয়াকে জোর করে দল ও তৃণমূল নেত্রীর নাম করে জিন্দাবাদ স্লোগান দেওয়াতে চায় | তাতে রাজি না হওয়ায় সেই সমস্ত পড়ুয়াদের প্রথমে মারধর এবং পরে কলেজের একটি ঘরে আটকে রাখা হয় ।

ঘরে আটকে রাখার খবর চাউর হতেই কলেজের কয়েকজন শিক্ষকে ঘটনার নিন্দা করে আটকে থাকা পড়ুয়াদের উদ্ধার করে ।

আর তাতেই সেই অধ্যাপকদের উপর বিরূপ হয় ওই সদস্যরা | কলেজ ছুটি হওয়ার পর অধ্যাপকরা বাইরে বেরোতেই তাঁদের উপর চড়াও হয় বলে জানায় কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা | রাস্তায় ফেলে তাঁদের ব্যাপক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে | তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সেই ছাত্রদের হাতে মার খাওয়া শিক্ষকদের মধ্যে বাংলা বিভাগের এক অধ্যাপককে প্রাথমিক চিকিৎসা করাতে হয় বলে খবর । এই ঘটনার পর উত্তরপাড়া থানায় এবিষয়ে অভিযোগ দায়ের করা হয় । পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে ।

শিক্ষায় অনিলায়নে সরব শাসক দলও কি তবে একই পথে হাঁটছে এরপর প্রশ্ন করছে উত্তরপাড়াবাসী ?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here