তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যের বিরুদ্ধে বিজেপি কার্যালয় ভাঙচুরের অভিযোগ হাঁসখালিতে,অস্বীকার নেতার

0

Last Updated on

রাইজিং বেঙ্গল ডেস্ক : রাজ্য রাজনীতিতে নারদা,রাজীব কুমার অন্তর্ধানের মত ঘটনায় রাজ্যবাসীর চোখ আটকে গিয়েছিল | সাময়িকবাবে বন্ধ ছিল রাজনৈতিক হানাহানির ঘটনা | দিন কয়েক শান্তির মধ্যেই ফের শাক-বিরোধী দ্বন্দে উত্তপ্ত হয়ে উঠল নদীয়ার হাঁসখালি থানার অন্তর্গত গারাপতা কলাবাগান এলাকায় । বিজেপির দলীয় কার্যালয় সহ এক বিজেপি কর্মীর বাড়ি ভাঙচুর ও শূন্যে গুলি চালানোর অভিযোগে উত্তজেনা ছড়াল তৃণমূল ও বিজেপির কর্মীদের মধ্যে | শাসকদলের দিকে অভিযোগের আঙুল উঠলেও অভিযোগ অস্বীকার শাসক দলের |

রবিবার রাতে গাজনা পঞ্চায়েতের তৃণমূলের সদস্য সমরেন্দ্র গয়ালির বিরুদ্ধে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ ওঠে | বিজেপি কার্যালয় ভাঙচুরের পাশাপাশি স্থানীয় বিজেপ কর্মী রঞ্জন বৈদ্যের বাড়িতেও হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতকারী | ভাঙচুরে বাঁধা দিতে গেলে শূন্যে তিন রাউন্ড গুলি চালানো হয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীর দাবি | পুরো ঘটনা মোবাইল বন্দী করতে চাইলে এক কিশোরকে ধারালো অস্ত্রের কোপ মারা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে ।

স্থানীয় বিজেপি নেতাদের অভিযোগ,নদীয়ার এই অঞ্চলের মানুষের জনসমর্থন হারাতে বসেছে শাসক দল | তাই বিরোধীদের ভয় দেখিয়ে নিজেদের দলে টানতে চাইছে তারা | আসন্ন নির্বাচনে যে ফল মোটেই তাদের পক্ষে যাবেনা , তা টের পেয়েই এই হামলা বলে মন্তব্য বিজেপি নেতৃত্বের | লিখিতভাবে থানায় অভিযোগ করা ছাড়াও রাজ্য নেতৃত্বের কাছে গোটা বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে |

যদিও বিজেপির করা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেন অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা সমরেন্দ্র গয়ালি ও তার দলীয় কর্মীরা । তাদের মতে,এটি বিজেপিরই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফল । গন্ডগোলের সময় ওই তৃণমূল নেতা ও দলীয় কর্মীদের কেউই ঘটনাস্থলে হাজির ছিলেন না বলেও দাবি করেন তিনি | গোটা ঘটনায় এলাকায় উত্তজেনা রয়েছে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here