করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে এলেন রাজ্যের বিজেপি সাংসদেরা

0
BJP MP's come forward to fight Corona

Last Updated on

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা রাজ্যে ৪| তবুও আশঙ্কা তা যদি বেড়ে যায় এক লপ্তে ,তবে কি হবে? উপযুক্ত পরিকাঠামো ছাড়া তা কোনভাবেই সামাল দেওয়া যাবেন না | চিনের মত রাতারাতি ১১টি উন্নত হাসপাতাল তৈরি করা যে সম্ভব নয় তা কারোরই অজানা নয় | দেশের প্রধানমন্ত্রী থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের আর্জি তাই পাশে দাঁড়ানোর | সেই আর্জিতে সাড়া দিয়েছে দলমত নির্বিশেষে জনপ্রতিনিধিরা | রাজ্য থেকে নির্বাচিত বিজেপি জনপ্রতিনিধিরা তাদের সাংসদ তহবিল থেকে করোনা মোকাবিলায় অর্থ সাহায্যের প্রস্তাব দেন | রাজ্যে বিজেপির সাংসদ সংখ্যা ১৮ ।

আরো পড়ুন :কেন্দ্রের করোনা সার্কুলারের বিরোধীতা কেরল সরকারের,চুপ চিন ও দক্ষিণ কোরিয়ার বিতর্কিত ফতোয়ায়

সূত্রের খবর দিল্লি বিজেপি থেকে তাদের সকলকে করোনার চিকিৎসায় ১ কোটি টাকা অনুদান দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি টাকা দিয়েছেন ১.৬ কোটি টাকা দিয়েছেন সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া। নিজের সাংসদ তহবিল থেকে হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় দিয়েছেন ১ কোটি টাকা । একই তালিকায় রয়েছেন বাঁকুড়ার সাংসদ সুভাষ সরকারও | তাঁর দেওয়া অর্থও ১ কোটি টাকা | বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার ৩০ লক্ষ টাকা ও সৌমিত্র খাঁ ৮০ লক্ষ টাকা। ৫০ লক্ষ টাকা দিয়েছেন পুরুলিয়ার সাংসদ জ্যোতির্ময় মাহাতো ।

আরো পড়ুন :করোনা আতঙ্ক, বেঙ্গালুরুতে বাতিল হল সংঘের সমাবেশ

৫০ লক্ষ টাকা দিয়েছেন নিশীথ প্রামাণিক, রাজু বিস্ত, জন বার্লা ও কুনার হেমব্রম। রাজ্যে বেলেঘাটা হাসপাতাল ছাড়াও কলকাতার বেশ কয়েকটি হাসপাতালে নির্মিত হচ্ছে আইসোলেশন ওয়ার্ড| জেলার বিভিন্ন হাসপাতালেও করোনা আক্রান্তের জন্য আলাদা ওয়ার্ড তৈরি হচ্ছে | এসবের জন্য রাজ্য সরকার টাকা বরাদ্দ করলেও তা অপর্যাপ্তই | তাই রাজনৈতিক নেতা থেকে সাধারণ মানুষ সকলেরই সাহায্য প্রার্থনা করেছেন রাজ্যের মু্খ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here