বিরোধী কর্মীকে মারধর, বুথ ভাঙচুর, বোমাবাজিতে দিনভর উত্তপ্ত দেগঙ্গা

0

Last Updated on

সকাল থেকে দফায় দফায় সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে দেগঙ্গার পঞ্চায়েত এলাকার গ্রামগুলি| অভিযোগ ওঠে, হাড়োয়া বিধানসভার অন্তর্গত দেগঙ্গার হাদিপুর ঝিকরা ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের রামনগর দাসপাড়া এলাকার ১৬৬-১৬৭ নং বুথে বিজেপি কর্মীদের সমর্থকদের মারধর করে শাসকদলের কর্মী ও সমর্থকেরা| খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে বিজেপির সাংসদ পদপ্রার্থী সায়ন্তন বসু সেখানে পৌঁছলে বিজেপি সমর্থকেরা হাড়োয়া রোড অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে| পরে দেগঙ্গা থানার আইসি বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে যায় | বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে আলোচনা করার কুড়ি মিনিট পর অবরোধ তুলে নেয় বিক্ষোভকারীরা। বিজেপির অভিযোগ পূর্ব পরিকল্পিতভাবে তৃণমূল বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে ঝগড়া করছে এবং গোলমাল পাকিয়ে মারপিট করছে| অন্যদিকে দেগঙ্গারই অন্য একটি বুথে বিজেপি কর্মীকে মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে দেগঙ্গা নুরনগর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। স্থানীয় বিজেপি নেতার অভিযোগ, পার্শ্ববর্তী গোবিন্দপুর এলাকায় বিজেপি এজেন্টদেরকে বসতে দেওয়া হচ্ছিল না| শনিবার রাত থেকেই তাদের সমর্থক ও কর্মীদের পরিবারের ওপর অত্যাচার চালানো হচ্ছিল এমনটি অভিযোগ করেন! রবিবার সেই সব জায়গার বুথগুলিতে বিজেপির নির্বাচনী এজেন্ট দেওয়া হলে সেখান থেকে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। এই খবর পেয়ে দেগঙ্গা নুরনগর জিপি থেকে কয়েকজন কর্মী গোবিন্দপুরের পরিস্থিতি দেখতে যাচ্ছিল। অভিযোগ, সেই সময় পথের মাঝে আটকে ধরে জনৈক বিজেপি কর্মী শক্তি ঘোষকে এলোপাথাড়ি মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়| পরে তাকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তার একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়েছে| ঘটনার পর সেখানে পৌঁছয় বিশাল পুলিশবাহিনী|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here