“আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করা হচ্ছে ,” বললেন মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু

0

Last Updated on

তৃণমূল থেকে দলত্যাগী বিধায়ক ও নেতাদের বাড়িতে হামলার ছক করছে শাসক দল, এই অভিযোগ করেছিলেন শনিবার সকালে বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং | পরবর্তী নিশানায় রয়েছেন বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায় ও নপাড়ার বিধায়ক সুনীল সিং,বলেছিলেন তাও | অর্জুন সিংয়ের এই বক্তব্যকে মান্যতা দিয়ে আরও এক কদম এগিয়ে এদিনই সরকার ও তৃণমূল বিরোধী মন্তব্য করলেন বীজপুরের বিধায়ক | বললেন, বাড়িতে হামলা নয় শুধু , তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলার চক্রান্ত চলছে | আর তা চলছে ধাপে ধাপে | তৃণমূল কংগ্রেস একাধারে প্রশাসন ও দাগী দুষ্কৃতীদের দ্বারা এই চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেন মুকুল পুত্র | দলত্যাগ করে বিজেপির পদে যারাই রয়েছেন, তাদের প্রতিই একই আচরণ করছে শাসক দল, জানান শুভ্রাংশু |

বীজপুরের বিধায়ক তাঁর সরকারি নিরাপত্তা প্রত্যাহার প্রসঙ্গে বলেন ,প্রথমে ছয়জন ব্যক্তিগত নিরাপত্তা রক্ষী থেকে দুজনকে তুলে নেওয়া হয় | কোন মৌখিক বা লিখিত জানানো ছাড়াই | এরপর যখন তিনি ঘাসফুল ছে়ড়ে পদ্ম শিবিরে যান,তখন তাঁর ব্যক্তিগত দেহরক্ষীদের সবাইকেই তুলে নেয় সরকার | এতেই শুভ্রাংশুর প্রশ্ন, এই দেহরক্ষী দেওয়া বা তুলে নেওযার পিছনে ঠিক কোন কোন মাপকাঠি রয়েছে ? কটাক্ষ করে তার প্রাক্তন দলের এক সহকর্মীর উদ্দেশ্যে মন্তব্য, দলীয় কর্মীর কাছে চড় খেয়ে জেড প্লাস নিরাপত্তা দি কেউ পেতে পারেন , তবে যারা জনপ্রতিনিধি তাঁদের কোন শ্রেণীর নিরাপত্তা পাওয়া উচিত, তার জবাব দিতে হবে রাজ্যপাল বা স্পিকারকেই |

জন উন্নয়নমূলক কোন কাজ শাসক করতে বাধা দিচ্ছে প্রতি পদে পদে | এই অভিযোগও তোলেন মুকুল পুত্র | বলেন, তৃণমূলের জমানায় দাগী জেল খাটা আসামীদের নিরাপদ আশ্রয় রয়েছে | কিন্তু তাঁর মত জনপ্রতিনিধিদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ সরকার |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here