তাপমাত্রার নিরীখে পৃথিবীতে সর্বোচ্চ স্থানে চুরু,তীব্র হচ্ছে জলকষ্টও

0

Last Updated on

গত ২৪ঘন্টার মধ্যে পৃথিবীর ১৫টি সর্বোচ্চ গরমের স্থানগুলির মধ্যে ১০টিই আমাদের দেশের| তালিকার প্রথমেই রয়েছেো
রাজস্থানের চুরু| সোমবার সেখানকার তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৫০.৩ডিগ্রী সেলসিয়াস| এছাড়াও অন্য জায়গাগুলির মধ্যে রয়েছে,গঙ্গানগর(৪৮.৮),বিকানির(৪৮.৪),ফালোডি(৪৮.২),জয়শালমির(৪৭.৮),নওগঙ্গ(৪৭.৭)নারনুল(৪৭.৬),কোটা(৪৭.৫),পিলানি(৪৭.৫) এবং বারমের(৪৭.২)|দেশের শুষ্কতম স্থান রাজস্থানের গরমের দাবদাহে নাজেহাল স্থানীয় মানুষ থেকে ঘুরতে যাওয়া দেশি-বিদেশি পর্যটকেরা,সবাই| সকাল ৯টা থেকেই গরমের দাপট শুরু হয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন তাঁরা| চুরুর হাসপাতাল গুলোতে এমার্জেন্সি ওয়ার্ডগুলিতে শীতাতপনিয়ন্ত্রিত করা পাশাপাশি পর্যাপ্ত পাখা,এয়াককুলারের ব্যবস্থা রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলাশাসক রামরতন সোনকারিয়া| অধিক তাপমাত্রায় রাস্তার পিচ যতে গলে না যায় তার জন্য় দুবেলা রাস্তায় জল দিয়ে ভেজানোর ব্যবস্থা করেছে পৌরসভা| থর মরুভূমির প্রবেশদ্বার হিসেবে পরিচিত চুরুরতে গত সপ্তাহে েই তাপমাত্রার কারণে ১৭জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে| রাজস্থানের মত মধ্যপ্রদেশের তাপমাত্রাও চড়ছে দিন দিন|ইন্ডিয়ান মেট্রোলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট থেকে তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে মারাঠের বিদর্ভ অঞ্চলেও| যত গরম তীব্র হয়েছে তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে জলকষ্টও| বিভিন্ন গ্রামগুলিতে দশ দিনে একবার পানীয় দল সরবরাহ করা হচ্ছে| তাই পানীয় জলের ড্রামগুলি থেকে জল চুরি আটকাতে তাই তালা দিয়ে রাখছেন গ্রামবাসীরা,তেমন ছবিও ধরা পড়েছে জাতীয় সংবাদমাধ্যমগুলিতে|

গত ২৪ঘন্টার মধ্যে পৃথিবীর ১৫টি সর্বোচ্চ গরমের স্থানগুলির মধ্যে ১০টিই আমাদের দেশের | তালিকার প্রথমেই রয়েছে
রাজস্থানের চুরু | সোমবার সেখানকার তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৫০.৩ডিগ্রী সেলসিয়াস| এছাড়াও অন্য জায়গাগুলির মধ্যে রয়েছে ,গঙ্গানগর(৪৮.৮), বিকানির(৪৮.৪), ফালোডি(৪৮.২), জয়শালমির(৪৭.৮), নওগঙ্গ(৪৭.৭), নারনুল(৪৭.৬), কোটা(৪৭.৫), পিলানি(৪৭.৫) এবং বারমের(৪৭.২) | দেশের শুষ্কতম স্থান রাজস্থানের গরমের দাবদাহে নাজেহাল স্থানীয় মানুষ থেকে ঘুরতে যাওয়া দেশি-বিদেশি পর্যটকেরা,সবাই | সকাল ৯টা থেকেই গরমের দাপট শুরু হয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন তাঁরা| রাজস্থানের মত মধ্যপ্রদেশের তাপমাত্রাও চড়ছে দিন দিন | ইন্ডিয়ান মেট্রোলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট থেকে তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে মারাঠের বিদর্ভ অঞ্চলেও| যত গরম তীব্র হয়েছে তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে জলকষ্টও | বিভিন্ন গ্রামগুলিতে দশ দিনে একবার পানীয় দল সরবরাহ করা হচ্ছে | তাই পানীয় জলের ড্রামগুলি থেকে জল চুরি আটকাতে তাই তালা দিয়ে রাখছেন গ্রামবাসীরা, তেমন ছবিও ধরা পড়েছে জাতীয় সংবাদমাধ্যমগুলিতে |
লোকসভা ভোটে বিপুল জনসমর্থন নিয়ে জেতা বিজেপি সাংসদেরা অবশ্য বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করেছেন তীব্র জলকষ্টকে লাঘব করতে তারা সচেষ্ট থাকবেন|কংগ্রেসের নির্বাচনী প্রচারের মুখ রাহুল গান্ধি স্থানীয় এই সমস্য়া গুলি নিয়ে বিজেপি সরকারকে তোপ দাগলেও তাতে মোটেই আমল দেননি শুখা গ্রামের বাসিন্দারা| চাষের জল থেকে পানীয় জল,এই সমস্য়া সমাধানের জন্য তাঁরা তাকিয়ে রয়েছেন মোদির দ্বিতীয় ইনিংসের দিকেই|

গত ২৪ঘন্টার মধ্যে পৃথিবীর ১৫টি সর্বোচ্চ গরমের স্থানগুলির মধ্যে ১০টিই আমাদের দেশের| তালিকার প্রথমেই রয়েছেো
রাজস্থানের চুরু| সোমবার সেখানকার তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৫০.৩ডিগ্রী সেলসিয়াস| এছাড়াও অন্য জায়গাগুলির মধ্যরয়েছে,গঙ্গানগর(৪৮.৮),বিকানির(৪৮.৪),ফালোডি(৪৮.২),জয়শালমির(৪৭.৮),নওগঙ্গ(৪৭.৭)নারনুল(৪৭.৬),কোটা(৪৭.৫),পিলানি(৪৭.৫) এবং বারমের(৪৭.২)|দেশের শুষ্কতম স্থান রাজস্থানের গরমের দাবদাহে নাজেহাল স্থানীয় মানুষ থেকে ঘুরতে যাওয়া দেশি-বিদেশি পর্যটকেরা,সবাই| সকাল ৯টা থেকেই গরমের দাপট শুরু হয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন তাঁরা| চুরুর হাসপাতাল গুলোতে এমার্জেন্সি ওয়ার্ডগুলিতে শীতাতপনিয়ন্ত্রিত করা পাশাপাশি পর্যাপ্ত পাখা,এয়াককুলারের ব্যবস্থা রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলাশাসক রামরতন সোনকারিয়া| অধিক তাপমাত্রায় রাস্তার পিচ যতে গলে না যায় তার জন্য় দুবেলা রাস্তায় জল দিয়ে ভেজানোর ব্যবস্থা করেছে পৌরসভা| থর মরুভূমির প্রবেশদ্বার হিসেবে পরিচিত চুরুরতে গত সপ্তাহে েই তাপমাত্রার কারণে ১৭জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে| রাজস্থানের মত মধ্যপ্রদেশের তাপমাত্রাও চড়ছে দিন দিন|ইন্ডিয়ান মেট্রোলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট থেকে তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে মারাঠের বিদর্ভ অঞ্চলেও| যত গরম তীব্র হয়েছে তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে জলকষ্টও| বিভিন্ন গ্রামগুলিতে দশ দিনে একবার পানীয় দল সরবরাহ করা হচ্ছে| তাই পানীয় জলের ড্রামগুলি থেকে জল চুরি আটকাতে তাই তালা দিয়ে রাখছেন গ্রামবাসীরা,তেমন ছবিও ধরা পড়েছে জাতীয় সংবাদমাধ্যমগুলিতে|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here