শহরের মধ্যেই যেন আস্ত এক ভুতুড়ে টাউনশিপ, হাজার হাজার ফ্ল্যাটে থাকেনা কেউ

0
wish town has become haunted place.know why

Last Updated on

আর পাঁচটা ভুতুড়ে বাড়ি বা রাস্তা বা জঙ্গলের চেয়ে এ কাহিনী আলাদা। একটা ভানগড়ের কেল্লা বা একটা কার্শিয়াংয়ের রাস্তার মত রোমহর্ষক কোন গল্পের ইতিহাসও নেয় এ জায়গার। তবে তা না থাকলেও অক্লেশে এই জায়গা আর পাঁচটা ‘হন্টেড’ জায়গার চেয়ে কোন অংশে কম ভয়ের উদ্রেক করেনা পথচারীদের মধ্যে। রাজধানী দিল্লী থেকে অদুরে উত্তরপ্রদেশের নয়ডা থেকে গ্রেটার নয়ডা যাওয়ার জন্য রয়েছে বিস্তৃত হাইওয়ে ।

আরো পড়ুন :রাজ্য-দেশের প্রতিরক্ষা ও গোয়েন্দা তথ্য ইজরায়েলি সংস্থাকে পাচারের অভিযোগে সাসপেন্ড অন্ধ্রপ্রদেশের প্রাক্তন গোয়েন্দা প্রধান

সেই রাস্তা ধরে হাঁটতে থাকলে দেখা যায় একের পর এক হাউজিং কমপ্লেক্স। আর তারই মধ্যে সেক্টর ১২৮ থেকে ১৩৪ অংশটুকু রয়ে গেছে অপূর্ণ। একের পর এক ফ্ল্যাটবাড়ি খাঁ খাঁ অবস্থায় দাঁড়িয়ে রয়েছে মূর্তিমান বিভীষিকার মত। যার পাশ দিয়ে গেলে এমনকি দুপুর বেলাতেও মানুষ দেখে ভয় পায়।

কিন্তু এমন তো হওয়ার কথা ছিল না। পোশাকি নাম ‘উইশ টাউনে’র এই ফ্ল্যাট গুলিতেই পূরণ হওয়ার কথা ছিল সারা জীবনের সঞ্চয়ে কেনা একাধিক মধ্যবিত্ত স্বপ্নর ।

আরো পড়ুন :“বুরখা শয়তানের প্রতীক,মানুষের প্রয়োজন নেই,ভারতে নিষিদ্ধ হোক” মন্তব্যে বিতর্কে বিজেপি নেতা রঘুনাথ সিং

কিন্তু কপাল বড় বালায়। ফ্ল্যাট প্রস্তুতকারী সংস্থার মেটেনি ঋণের বোঝা। রাজধানীর উপকণ্ঠে উপনগরীর এই অংশেরও হয়নি আর সম্পূর্ণ হয়ে ওঠা। তাই ফ্ল্যাট অর্ধেক বানানো গেলেও তার ‘পজেশ্যান’ও রয়ে গেছে অসম্পূর্ণ। আপাতত তাই ‘ভুতুড়ে’ হয়ে দাঁড়িয়ে আছে গ্রেটার নয়ডার ‘উইশ টাউন’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here