বিদ্যাসাগরের মূর্তি উন্মোচনে জুনিয়র ডাক্তারদের প্রসঙ্গে কেন নীরব রইলেন মুখ্যমন্ত্রী ?

0

Last Updated on

১৪ই মে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের পদযাত্রা চলাকালীন, বিদ্যাসাগর কলেজের মূর্তি ভাঙার পর রাজনীতির জল গড়িয়েছে অনেক দূর | কে ভেঙেছে, কারা ভেঙেছে এ নিয়ে বিস্তর বাদানুবাদের পরও সরকার পক্ষ বাংলা তথা দেশের সামনে সেই প্রমাণ হাজির করতে পারেননি এখনও | সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মোদি-অমিত শাহ থেকে সাধারণ কর্মীরাও সেদিন আঙুল তুলেছিলেন শাসকদলের সমর্থকদের দিকে | আরও ভিশদে বললে ছাত্র রাজনীতির নেতাদের দিকে| বিজেপির মিছিল যখন কলেজের সামনে দিয়ে যাচ্ছিল সেই সময় কি করছিলেন বিদ্যাসাগর কলেজের তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বেশ কিছু সদস্য ? কলেজের ভিতর থেকে কারা ইঁট মেরেছিল ? সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে এসেছিল স্বপক্ষে ও বিপক্ষে নানা যুক্তি | পাল্টা অমিত শাহের রোড শোকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটায় শাসক দল নিশানা করেছিল বিজেপি সমর্থকদের | তাঁরাই মিছিল ভেঙে বেরিয়ে কলেজে ঢুকে এই অসভ্যতা করে বলে ঘটনাস্থলে কোন তদন্ত কমিটি করার আগেই প্রাথমিকভাবে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় | প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রতিবেশী রাজ্যে গিয়েও বাংলার বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রসঙ্গ টেনে বলেছিলেন , মূর্তি তিনি গড়ে দেবেন | এতে বিস্তর রেগে জনসভা থেকেই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাল্টা বলেছিলেন মূর্তি গড়বেন তাঁরাই |

মঙ্গলবার হেয়ার স্কুল প্রাঙ্গণ থেকে বিদ্বজনদের সঙ্গে নিয়ে হেঁটে তিনি বিদ্যাসাগর কলেজে সেই মূর্তি তিনি স্থাপন করেছেন | সেই মঞ্চেই বারবার উঠে এসেছে বিরোধী বিজেপির সংস্কৃতির প্রসঙ্গ | রাজনৈতিকদের মতে ,খুব সূক্ষ্মভাবে বাঙালি ও অবাঙালিদের মধ্যে বিভাজন রেখা টেনে রাজ্যবাসীকে বিজেপি বিরোধী বার্তা দিতে তৃণমূল নেত্রী এই মঞ্চকেই ব্যবহার করেছেন | মঞ্চ থেকে দুষেছেন রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান রাজ্যপালের বক্তব্যকেও | অথচ নাতিদীর্ঘ তাঁর ভাষণের মধ্যে কোথাও ছিলনা নিগৃহীত জুনিয়র ডাক্তারদের কথা | মঙ্গলবার গোটা রাজ্য ব্যাপী জরুরী স্বাস্থ্য পরিষেবা অচলাবস্থার ব্যাপারে তাঁর সরকার কি পদক্ষেপ করছেন তা নিয়ে একটি শব্দও খরচ করেননি তিনি | এই পরিস্থতিতে প্রশ্ন উঠছে তবে যে ছেলে মেয়েগুলি নিরাপত্তার দাবিতে অবস্থান বিক্ষোভ চালাচ্ছেন তাদের নিরাপত্তা দেবার দায়িত্ব কি তাঁর নয় ? প্রশ্ন উঠছে সোমবারের এনআরএসের হাসপাতলের ঘটনার মত পুলিশের ন্যাক্কারজনক ভূমিকায় কজন আধিকারিককে এখনও পর্যন্ত সাসপেনশন ধরিয়েছেন তাঁর হাতে থাকা দফতর ? এই প্রশ্ন গুলি সাধারণ মানুষের| বিরোধী বিজেপি অবশ্য বিদ্যাসাগরের মূর্তি স্থাপনকে নাটক বলে অভিহিত করেছেন| বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তাঁর ফেসবুক পোস্টে স্লোগান তোলেন,মূর্তি ভেঙে,মূর্তে প্রেম| মমতা ব্যানার্জি শেম শেম| তাঁদের মতে রাজ্যে হিংসা,হানাহানির থেকে রাজ্যবাসীর নজর ঘোরাতেই এই উদ্যোগ মুখ্যমন্ত্রীর| রাজনৈতিক তর্ক-বিতর্ক বাদ দিয়ে রাজ্যের ভবিষ্যত স্বাস্থ্য পরিকাঠামো যাদের হাতে সেই জুনিয়র ডাক্তারেরা পথে বসে আছেন রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে| তাঁদের জন্য স্বাস্থ্যপ্রতিমন্ত্রীকে পাঠিয়ে বরফ গলানোর চেষ্টা না করে এই অনুষ্ঠান থেকেই কি একবারের জন্য সেই আক্রান্ত জুনিয়র ডাক্তার পরিবহ মুখ্রা্জিকে দেখতে যেতে পারতেন না মুখ্যমন্ত্রী ? প্রশ্ন উঠছে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here