কাশ্মীরে ৩৭০ বিলোপের আগে বাজেয়াপ্ত হয়েছিল ২৫০জন পুলিশের সরকারি বন্দুক

0

Last Updated on

ভারতীয় সেনাবাহিনীতে কাজ করা অবস্থাতেই জঙ্গী সংগঠনে যোগ দেওয়ার নজির রয়েছে আগেই | জঙ্গীদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের জন্য উপত্যকায় কাশ্মীরের বিশেষ ক্ষমতা লোপের আগে কমপক্ষে ২৫০জন সেনা জওয়ানের থেকে তাদের সরকারি অস্ত্র নিয়ে নেওয়া হয়েছিল বলে খবর পুলিশ সূত্রে | এই ২৫০জনের মধ্যে বেশ কিছু জন নিখোঁজ ছিল | তাদের ফেলে যাওয়া রাইফেলস ও অন্যান্য অস্ত্র-শস্ত্র আটক করা হয় | এই পুলিশেরা স্পেশ্যাল পুলিশ গ্রুপের অন্তর্গত | এটি স্থায়ী চাকুরির পদ নয় | অস্থায়ী রূপে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য কখনো কখনো এদেরকে নিয়োগ করে কাজে লাগানো হত | জঙ্গীদের সফট টার্গেট ছিল এই স্পেশ্যাল অপারেশন গ্রুপের কর্মীরা |

স্পেশ্যাল গ্রুপের মধ্যে বেশিরভাগই স্থানীয় বাসিন্দা হওয়ায় তাদের মধ্যে সরকারের সিদ্ধান্ত ক্ষোভের তৈরি করতে পারে | সেই আশঙ্কা থেকেই প্রতিটি থানায় বেশি করে সিআরপিএফ জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছিল | তাই এই সিদ্ধান্তের আগে ১০০০০অতিরিক্ত সিআরপিএফ জওয়ান উপত্যকায় মোতায়েন করা হয় |
যদিও পুলিশের উচ্চ পদস্থ আধিকারিকেরা নীচু তলার কোন ক্ষোভের খবরের সত্যতা উড়িয়ে দিয়ে বলেছেন তাদের ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশে কোন অশান্তিকর পরিস্থিতি তৈরির কোন সম্ভাবনাই নেই | স্বাভাবিকের দিকে যাচ্ছে কাশ্মীরের পরিস্থিতি | ধীরে ধীরে তাই উঠিয়ে নেওয়া হচ্ছে ১৪৪ধারা | খুলে দেওয়া হচ্ছে যোগাযোগ ব্যবস্থা |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here