পাকিস্তানের তরফে জঙ্গী মদত বন্ধ না হলে চলবে ভারতীয় হানা, ইঙ্গিতে বোঝালেন রাওয়াত

0

Last Updated on

বালাকোটের আক্রমণের পর থেকেই বিরোধারী তার পিছনে কেউ কেউ রাজনৈতিক অভিসন্ধির গন্ধ পাচ্ছিলেন | কারো কারো মতে দেশের বেহাল অর্থনীতি, দিন দিন বাড়তে থাকা বেকারত্ব,তীব্র হিন্দুত্ববাদ সমর্থন এসব থেকে নজর ঘোরাতেই নাকি মোদি সরকার পাকিস্তানের সঙ্গে সঙ্গে মাঝে মাঝে যুদ্ধ যুদ্ধ খেলা খেলে থাকে | বিশেষত মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানার মত দুই গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে বিধানসভা ভোট চলাকালীন পাকিস্তানের নীলম ঘাঁটিতে আবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর এই সকল প্রশ্নগুলি বিশেষ করে উঠতে শুরু করেছে | কারণ বালাকোটের পরই বিপুল জনসমর্থন নিয়ে দ্বিতীয় বার মোদির মসনদ দখল করার পিছনে দেশ ভক্তির অঙ্কটাই কাজ করেছে বলে কেউ কেউ মনে করছিলেন | সত্যি কি তবে নজর ঘোরানোর কৌশল এসব ?

আরও পড়ুন: কাশ্মীরে জঙ্গী উপস্থিতি নজরে ভারতীয় গোয়েন্দাদের, জারি গ্রেড-এ সতর্কতা https://risingbengal.in/desh/kashmir-on-grade-a-alert/

তার ব্যাখ্যা দিলেন ভরাতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত | গোয়েন্দাদের দেওয়া সূত্রে তারা জানতে পারে উপত্যকায় ইতিমদ্য়েই পাক মদত পুষ্ট ৬০জঙ্গী ছুকে পড়েছে ভারতের মাটিতে | কমপক্ষে আরও ৫০০দন অপেক্ষা করছে সীমান্তের ওপারে পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের জইশ-ই-মহম্মদের জঙ্গী ঘাঁটিগুলিতে | প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এই জঙ্গীদের নিকেশ করতেই ভারতের আবারও এই অতর্কিত হানা বলে ব্যাখ্যা দেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান | এই আর্টিলারি হানায় কমপক্ষে ১৫জন জঙ্গী নিকেশ হচ্ছে বলে প্রাথমিক অনুমান ভারতের | যদিও পাক সেনাবাহিনীর এক সেনা ছাড়া কোন হতাহতের কথা স্বীকার করেনি পাকিস্তান |

এই হানার পর অবশ্য সীমান্তবর্তী পাক নাগরিকদের বাড়িগুলি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার নজির দেখানোর জন্য পাক অধিষ্ঠিত ভাতীয় হাই কমিশনারের সহ আরও চারটি দেশের কূটনৈতিক প্রতিনিধিদের ওই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে নিয়ে যায় মঙ্গলবার|

ভরাত সেই আমন্ত্রণে সাড়া দেয় নি বলেই খবর | বাকী চিন,ইরান, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রতিনিধিরা মঙ্গলবার সেখানে যান | পাকিস্তানের দাবি,কোন জঙ্গী নয় বরং ভরাতীয় হানাতে মারা গিয়েছে পাকিস্তানের পাঁচ গ্রামবাসী ও সেনাবাহিনীর জওয়ানেরা | যা ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফে অস্বীকার করে জাননো হয় পাকিস্তানের পাল্টা আক্রমণে বরং দুজন সীমান্তবর্তী এলাকার উপত্যকার বাসিন্দার মৃত্যু হয় |

আরও পড়ুন: বাংলা হরফে এবার ইসলামিক স্টেটের পোস্টার https://risingbengal.in/desh/bangla-horofe-ebar-islamic-state-er-poster/


পুরো ঘটনার পর ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং ভারতীয় সেনাবাহিনীকে নিশানা নির্ধারণে আরও যত্নবান হওয়ার কথা বললেও পাকিস্তানের সন্ত্রাসবাদে মদত রুখতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর হানা জারি থাকবে বলে পাশপাশি জানান তিনি |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here