হিন্দু সমাজের উপর নেমে আসা আক্রমণের বিরুদ্ধে হিন্দু জাগরণ মঞ্চের স্মারকলিপি প্রদান

0

Last Updated on

হিন্দু জাগরণ মঞ্চ, তারকেশ্বর জেলা,বৃহস্পতিবার, দুপুর ১২টার সময় এক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে হুগলী জেলার এসপি অফিস ( গ্রামীণ ) এর সামনে । হিন্দু জাগরণ মঞ্চের রাষ্ট্র রক্ষকরা সিঙ্গুর রেল স্টেশনের অদূরে জড়ো হন । মাতৃশক্তির উপস্থিতি ছিল প্রশংসনীয় । সেখান থেকে সবাই এক বিশাল মিছিল করে কামার কুন্ডু স্টেশনের কাছে এসপি ( গ্রামীণ ) অফিসের সামনে আসেন । সেখানে বক্তব্য রাখেন জেলা ও প্রান্ত কার্যকর্তাগণ।
কেন এই মিছিল ও স্মারক লিপি প্রদান, এর উত্তরে প্রান্ত যুব বাহিনী প্রমুখ শ্রী পল্টু কুকরি বলেন, রাজ্যে জয় শ্রীরাম উচ্চারণের উপর বাধা এসে গেছে । তার জন্য গ্রেফতার চলছে । সন্দেশখালিতে সংগঠিত ভাবে হিন্দু সমাজের উপর আক্রমণ নেমে এসেছে । এর প্রতিবাদে এই মিছিল, জনসভা ও স্মারকলিপি প্রদান ।
হিন্দু জাগরণ মঞ্চের জেলা সম্পাদক শ্রী নির্মল পাল বলেন, জয় শ্রীরাম-এর উপর যাবতীয় প্রতিবন্ধকতা তুলে নিতে হবে । জয় শ্রীরাম বলার জন্য কাউকে গ্রেফতার করা চলবে না । যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে,তাদের সবাইকে অবিলম্বে বিনা শর্তে মুক্তি দিতে হবে।
হিন্দু জাগরণ মঞ্চের প্রান্ত সভাপতি বলেন, দক্ষিণ ভারতের লোকরা রাবণ বধ করার প্রারম্ভে জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিয়ে সাগরের উপর এক বিশাল সেতু নির্মাণ করেন । জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিয়ে যুদ্ধ বিশারদ রাবণকে বধ করেন । রাম সীতা লক্ষ্মণ অযোধ্যায় ফিরে এলে জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিয়ে বরণ করেন । ৭০০০ বছরের বেশী সময় ধরে ভারতের হিন্দুরা জয় শ্রীরাম উচ্চারণ করে আসছেন । এর উপর প্রতিবন্ধকতা আসলে হিন্দু জাগরণ মঞ্চের রাষ্ট্র রক্ষকরা ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বুঝে নেবেন।
তিনি আরও বলেন, মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যকে ইসলামীকরনের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন, যেটা হিন্দুর পক্ষে বিপজ্জনক । তিনি বলেন, রাজ্যকে গৈরিকিকরনের দিকে নিয়ে যেতে হবে, ইসলামীকরনের হাত থেকে রাজ্যকে বাঁচাতে হবে । হিন্দু জাগরণ মঞ্চের রাষ্ট্র রক্ষকরা ইসলামীকরন রুখে দেবেন এবং পরিপূর্ণ গৈরিকিকরন করবার প্রয়াস চালিয়ে যাবেন।
হিন্দু জাগরণ মঞ্চের পাঁচ জন কার্যকর্তা হুগলী জেলার এসপি ( গ্রামীণ ) এর হাতে স্মারকলিপি তুলে দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here