অনুপম হত্যাকান্ডের রায়ে খুশি নন তাঁর পরিবার, আদালত চত্বরে উত্তেজনা

0

Last Updated on

২০১৭ সালের ২ মে | উত্তর ২৪ পরগণার হৃদয়পুরে ভ্রমণ সংস্থার কর্মী অনুপম সিংহ খুন হন । ৩রা মে নিজের বাড়ি থেকেই দেহ উদ্ধার হয় অনুপমের । প্রথমে খুনের কারণ নিয়ে ধন্দে পড়ে পুলিশ । পরে ঘটনার তদন্তে নেমে চাঞ্চল্যকর তথ্য হাতে আসে তদন্তকারী অফিসারদের । অনুপমের স্ত্রী মনুয়াই খুনে জড়িত বলে জানতে পারে পুলিশ । দীর্ঘ ২৩মাসের পর সেই চাঞ্চল্যকর মামলার রায় দান ও সাজা ঘোষণা হয় বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার | দোষী সাব্যস্ত হয় অনুপমের স্ত্রী মনুয়া মজুমদার ও তার প্রেমিক অজিত দাস | আর শুক্রবার তাদের দুজনেরই যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করল বারাসাত আদালত |

কিন্তু রায়ে খুশি নন অনুপমের পরিবার | তাদের আত্মীয়-স্বজনদের প্রশ্ন কেন ফাঁসি হবে না ওই প্রেমিক যুগলের ? যে নৃশংসতার সঙ্গে অনুপমকে খুন করেছিল অজিত এবং যে খুনের ধারা বিবরণ শোনার মত জায়গায় ছিল মনুয়া ,তাদের কেন যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেওয়া হল ? তারা এই রায়ের পিছনে রাজনৈতিক প্রভাবের উল্লেখ করেছেন সরাসরি | অনুপমের বাবা বলেন, এদেশে বিচার নির্ভর করে রাজনৈতিক অঙ্গুলিহেলন | তাই এই রায় নিয়ে তাঁদের কিছু বলার নেই | রায় শোনার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন অনুপমের মাও | ক্ষোভে ফেটে পড়েন তার মাসীও |

কোর্ট চত্বের অনুপমের বন্ধুদের সঙ্গে আইনজীবীদের ধস্তাধস্তিতে সাময়িক উত্তজেনা সৃষ্টি হয় বারাসাত আদালত চত্বরে | সাজা শুনে হতাশ হন অুপমের বন্ধুরাও | প্রসঙ্গত অনুপম হত্যাকাণ্ডে ৩১ জনের সাক্ষ্যপ্রমাণ নেওয়া হয়েছে । ১৮৬ দিনের মাথায় এই ঘটনায় চার্জশিট পেশ করে পুলিশ | আসামীদের আইনজীবীদের পক্ষ থেকে রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আবেদনের কথা বলা হয়েছে | কারণ এই রায়ে খুশি নন তারাও | তাদের বক্তব্য প্রকৃত অপরাদী ঘুরে বেরাচ্ছে,আর নির্দোষ মনুয়া ও অজিতকে ফাঁসানো হয়েছে এই মামলায় |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here