ট্রেনের তলায় মৃত্যু গৃহবধূর,ধাক্কা দেওয়ার অভিযোগ উঠল মৃতার স্বামীর বিরুদ্ধে

0

Last Updated on

ট্রেনের তলায় পড়ে মৃত্যু হল এক মহিলার | জানা গিয়েছে মৃতের নাম তনিমা মুখোপাদ্যায় | প্রথম পক্ষের স্বামীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ার পর তনিমা মুখোপাধ্যায়(33) নামে ওই গৃহবধুর সঙ্গে বছর দেড়েক আগে ইছাপুর প্রভাস পল্লীর বাসিন্দা অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিয়ে হয় | কাঁচরাপাড়া শিবানী হাসপাতালে ফার্মাসিস্ট হিসেবে কর্মরত তনিমার সঙ্গে অরিজিতের বিয়ে হওয়ার পর থেকে নানা কারণে তাদের বিবাদ লেগেই থাকত । অশান্তি এড়াতে প্রথম পক্ষের ছেলেকে নিয়ে ইছাপুর নবাবগঞ্জের মারিকপাড়া এলাকায় বাপের বাড়িতেই থাকতে শুরু করেন তনিমা । সেখান থেকেই কাঁচরাপাড়ায় তার কর্মস্থলে যাওয়া শুরু করেন তিনি |

প্রতিদিনের মতই বৃহস্পতিবার সকালেও কাজে বেরোয় তনিমা | দুপুরের দিকে নৈহাটি জিআরপির পক্ষ থেকে তার তনিমার পরিবারকে ফোনে জানানো হয় তার দুর্ঘটনার কথা | সেই খবর শোনা মাত্রই নৈহাটি জিআরপিতে গিয়ে মেয়ের মৃতদেহ দেখতে পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে তার পরিবারের সদস্যরা | মৃতার বাপের বাড়ির লোকের অভিযোগ, তনিমার বর্তমান স্বামী অরিজিতই ট্রেনের সামনে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে খুন করেছে । কারণ তাকে ছেড়ে যখন বাপের বাড়িতে থাকা শুরু করে তানিমা, সেই থেকেই নানাভাবে তাকে উত্ত্যক্ত করত অরিজিৎ। পরিবারের দাবি এদিনও তনিমা যখন নিজের কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিল, সেই সময় সেখানে গিয়েও তাকে উত্ত্যক্ত করছিল অরিজিৎ । সেখানে তাদের দুজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা ও হয় বলে স্থানীয় সূত্রে জানতে পেরেছে তারা । অভিযোগ, এরই মধ্যে তনিমা কাঁচরাপাড়া স্টেশনে বাড়ি ফেরার জন্য ট্রেন ধরতে আসার সময় ডাউন কল্যাণী লোকালের সামনে ফেলে দিয়ে চম্পট দেয় অরিজিৎ ।

যদিও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে এচি একটি আত্মহত্যার ঘটনা । মৃতের পরিবারের পক্ষ থেকে অরিজিতের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের করার পর পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে । তনিমার মৃত্যু আত্মহত্যা নাকি খুন তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত অরিজিৎ গা ঢাকা দিয়েছে । তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে নৈহাটি পুলিশ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here