পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে সরতে হল মালদার পুলিশ সুপার অর্ণব ঘোষকে!

0

Last Updated on

মালদা: মালদার পুলিশ সুপার অর্ণব ঘোষকে অপসারণ করল নির্বাচন কমিশন৷ শনিবার দিল্লির নির্বাচন সদন থেকে তাঁকে সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে ফ্যাক্স এসে পৌছয় কলকাতার সিইও দফতরে| পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা বলে চিঠিতে উল্লেখ| গত পরশু তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আগাম অনুমতি ছাড়া মালদা শহরে পদযাত্রা করতে দেওয়ায় অর্ণব ঘোষের উপর নজর পড়ে নির্বাচন কমিশনের৷ অবশ্য তার আগেই জেলার সমস্ত বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি তাঁকে অপসারণের দাবি জানিয়েছিল৷ বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে মালদার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে রিপোর্ট পাঠান| জেলায় অবাধ ও শান্তপূর্ণ নির্বাচন করতে গেলে অর্ণব ঘোষের অপসারণ প্রয়োজন,এই মর্মে রিপোর্ট দেওয়ার পরই দিল্লি থেকে ফ্যাক্স আসে বলে এক নির্বাচনী আধিকরিকের মন্তব্য| ফ্যাক্স পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই অর্ণব ঘোষকে মালদা জেলার পুলিশ সুপার পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়৷ তাঁর জায়গায় দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বারুইপুরের বিশেষ পুলিশ সুপার অজয় প্রসাদকে৷ এর আগে নির্বাচন কমিশনের রোষের মুখে আগেই পড়েছিলেন বাংলার তিন আইপিএস ক্যাডার| তাতে যথেষ্ট ক্ষুদ্ধ হয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমেো মমতা বন্দোপাধ্যায়| তাঁর অভিযোগ বাংলার বিজেপির কয়েকজন নেতার অঙ্গুলিহেলনে চলছেন নির্বাচন কমিশন| তৃতীয় দফায় ২৩শে এপ্রিল বালুরঘাট,মালদা উত্তর,মালদা দক্ষিণ,জাঙ্গীপুর এবং মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হবে| ভোটগ্রহণের ঠিক তিনদিন আগে এই রদবদল নিঃসন্দেহে শাসকদলের কাছে বড় ধাক্কা বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল| পুলিশ মহলে শাসক ঘনিষ্ঠ আইপিএস অফিসারদের মধ্যে অর্ণব ঘোষের নাম উঠে এসেছে বারবার| উল্টোদিকে পুলিশি রদবদলের মাধ্যম অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোট পরিচালনা করতে পারাটাও নির্বাচন কমিশনের কাছে একটা বড় চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here