শিক্ষকের ব্ল্যাকমেলের চোটে অতীষ্ঠ ছাত্রীর অজ্ঞাতবাসের সিদ্ধান্ত,পরে উদ্ধার রেল স্টেশন থেকে

1
complaint letter

Last Updated on

উদীয়মান সাঁতারুর কোচের হাতে শ্লীলতাহানির দিনই আরেক এক অন্ধকার কাহিনী বাংলার বুকে | শিক্ষক দিবসের দিনই সামনে এল দুর্গাপুরের এক কু-শিক্ষকের কথা | কন্যাসম ছাত্রীর স্নানের ভিডিও তুলে তা ভাইরাল করার হুমকি দিতে থাকে সেই শিক্ষক ছাত্রীটিকে | এমনকি এই কথা কাউকে জানালে ছাত্রীর পরিবারকে শেষ করে দেওয়া হবে বলে হুমকিও দেয় ওই শিক্ষক । চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে এই মানসিক যন্ত্রণা সহ্য করছিল বছর ১৬-র ওই নাবালিকা । এই কথা সে বাড়িতে তার মা কিংবা অন্য কাউকেই জানাতে পারেনি । স্কুল যাওয়ার পথে,টিউশন পড়তে যাওয়ার পথে ক্রমাগত ওই শিক্ষক নাবালিকাকে উত্যক্ত করে গিয়েছে বলে অভিযোগ ওই নাবালিকার ।

গত ২রা সেপ্টেম্বর মায়ের উদ্দেশ্যে একটি চিঠি লেখে ওই নাবালিকা । যে চিঠিতে লেখা ছিল যে এই মানসিক যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে সে ঘর ছেড়ে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি দিচ্ছে । তার পরিবারের কোন ক্ষতি চায়না সে, তাই অজ্ঞাতবাসের সিদ্ধান্ত ষোড়শীর । সংবাদ মাধ্যমে মুখোমুখি হয়ে পরে সে বলে, দুর্গাপুর স্টেশন থেকে আসানসোলের দিকে ট্রেন ধরে সেদিন । কিন্তু তারপর কি হয়েছিল তা তার অজানা |

অন্যদিকে ওই নাবালিকার মা ২ তারিখেই স্থানীয় কোকওভেন থানায় মেয়ের অপহরণের অভিযোগ দায়ের করে । বৃহস্পতিবার তাকে স্থানীয় থানা থেকে তাকে জানানো হয় যে মেয়ের সন্ধান পাওয়া গেছে । আসানসোল জেলা হাসপাতালে মেয়েকে চিহ্নিত করেন মা । অবশেষে কোকওভেন থানার পুলিশের উপস্থিতিতে দক্ষিণ থানার পুলিশ ওই নাবালিকাকে পরিবারের হেফাজতে দিয়ে দেয় ।

নাবালিকা আপাতত স্বাভাবিক হলেও কীভাবে গুরুতর আহত হল সে বিষয়ে কিছুই জানাতে পারেনি সে । গোটা ঘটনায় কার্যত হতবাক মেয়ের মা-ও | তবে যে তার মেয়েকে নিয়ে গিয়েছিল,তিনি অভিযোগের আঙুল তুলেছেন তার দিকে | শাস্তির দাবিও করছেন তার | অভিযুক্ত শিক্ষক কেন ব্ল্যাকমেল করছিল পরিষ্কার নয় তাও | এই প্রশ্নের কোন সদুত্তর দিতে পারেনি মেয়েটিও | তবে মায়ের দাবি তার সরল মেয়েকে ভুল বোঝানো খুব সহজ |

গোটা ঘটনায় দানা বেধেছে রহস্য । তদন্তে নেমে পুলিশ অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে ডেকে একপ্রস্থ জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ । জানা যায় ওই মেয়েটির বাড়ির পাশে গলিতে থাকা ওই শিক্ষকের নাম সঞ্জয় | কিন্তু কেন ওই শিক্ষক নাবালিকাকে ব্ল্যাকমেল করছিল ? কি তার উদ্দেশ্য ছিল ? ওই নাবালিকা কিভাবে এত মাথায় এত গুরুতর চোট পেল ? এই ঘটনাকে ঘিরে এরকম বেশ কয়েকটি প্রশ্ন উঠে আসছে , যার উত্তর আগামী দিনে পুলিশি তদন্তে নিশ্চিতভাবেই পাওয়া যাবে বলে আশা শিল্পাঞ্চলবাসীর ।

1 COMMENT

  1. কোথায় মেয়েটা ব্ল্যাকমেল করবে, তা না করে নিজেই ভয় পাচ্ছে। মেয়েগুলো বোকা হয় কেন?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here