শাসকের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উত্তপ্ত কাঁকরতলা,এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজি,চলল গুলি

0

Last Updated on

বীরভূম: এলাকার রাশ কার হাতে থাকবে তাকে কেন্দ্র করে কাঁকরতলা থানার বড়রা গ্রামে শাসকের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা। রাতভর চলে বোমাবাজি ও গুলি। তৃণমূলের দুই গোষ্ঠী কাঁকর তলা তৃণমূল কার্যালয় বিস্ফোরণকাণ্ডে মূল অভিযুক্ত শেখ কালো এবং উজ্জ্বল কাদরির অনুগামীদের মধ্যে সংঘর্ষ চলছিল বেশ কিছুদিন ধরে। শেখ কালোর বাড়ির লোকের অভিযোগ সোমবার রাত্রিবেলা,উজ্জ্বল কাদেরির অনুগামীরা বোম, বন্দুক নিয়ে চড়াও হয়| তারপর চলে মুহুর্মুহু বোমাবাজি। বন্দুক দেখিয়ে ভয় দেখানোও ছাড়াও শেখ কালোর বাড়ির একটি ঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার মত ভয়ঙ্কর অভিযোগও করেন শেখ কালোর পরিবারের লোকেরা| ব্যাপক বোমাবাজির ফলে শেখ কালোর বাড়ির একাংশ ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরাও জানান| দেওয়ালের নানা জায়গায় ইতিউতি ছড়িয়ো রয়েছে বোমাবাজির চিহ্ন।ঘরের মেঝেতে রয়েছে কাঁচের ভাঙা অংশ। লণ্ডভণ্ড ঘরের নানা জায়াগায় পড়ে থাকতে দেখা গিয়েছে ভাঙা জিনিসপত্রও|
ঘটনার পর সকালে পুলিশ এসে ৪ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। যাদের মধ্যে রয়েছেন শেখ কালো নিজেও। তাঁর বাড়িতে দুষ্কৃতী চড়াও হওয়ার পর কীভাবে তাকেই আবার পুলিশ আটক করল,তা কিছুতেই বুঝে উঠতে পারছেন না তার পরিবারের সদস্যরা|
অপরদিকে উজ্জ্বল তার অনুগামীদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে| তারা জানায় শেখ কালো এলাকায় ত্রাস হয়ে উঠেছিল| সাধারণ মানুষ আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছিল আতঙ্কিত গ্রামবাসীরা বাড়ি থেকে বের হতেও ভয় পাচ্ছিল। তাই জনরোষের ফলে এমন ঘটনা ঘটে সোমবার রাতে| পাশাপাশি তাদের আরও অভিযোগ ঝাড়খান্ড থেকে সুপারি কিলার দিয়ে বিরুদ্ধ্ শিবিরের ছেলেদের মারার ছক কষেছিল শেখ কালো,জানায় উজ্জ্বলের অনুগামীরা|আপাত শান্ত হলেও দুই গোষ্ঠীর এহেন সংঘর্ষে প্রমাদ গুনছেন গ্রামবাসীর|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here