উপরাষ্ট্রপতি স্বাগত, ফেরত যাও উপাচার্য’ – পোস্টারে ছয়লাপ বিশ্বভারতী

0

Last Updated on

বিশ্বভারতীকে ঘিরে নানা উপদ্রব লেগেই থাকে | প্রাক্তন উপাচার্য সুশান্ত দত্তগুপ্তর ইস্তফার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্ব নেন দিল্লি থেকে আগত অধ্যাপক বিদ্যুত চক্রবর্তী | ১৬ই আগস্ট বিশ্বভারতীতে আসছেন উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু | শুক্রবার সেই মর্মে সাজো সাজো রব বিশ্বভারতী প্রাঙ্গণে | কিন্তু তাল কাটল বেশ কিছু পোস্টারে| পোস্টারগুলিতে লেখা আছে,WELCOME HONOURABLE PRESIDENT, SRI V.NAIDU.ঠিক তাই নীচেই আরেকটি পোস্টারে লেখা রয়েছে REMOVE AUTOCRATIC VICE -CHANCELLOR Prof. Bidyut Chakrabarty.

দ্বিতীয় পোস্টারটিতে যথেষ্ট অস্বস্তিতে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ | কে বা কারা এই পোস্টার লাগালো রাতের অন্ধকারে তা নিয়ে ধওঁয়াশা রয়েছে | যদিও বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা জায়গায় এই পোস্টারটি দেখা গিয়েছে | মূলত শান্তনিকেতন ক্যাম্পাস ও বিনয় ভবনে ওই পোস্টার দেখা গিয়েছে | no more professor bidyut chakrabarty পোস্টারও নজরে পড়েছে |
এই ঘটনায় প্রশ্ন উঠছে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা নিয়েও | উপরাষ্ট্রপতি যেখানে আসছেন সেখানে বৃহস্পতিবার থেকেই রয়েছে আঁটোসাঁটো নিরাপত্তা | তা ভেদ করে কীভাবে কারা এই পোস্টার লাগানো তা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে |

অন্যদিকে মনে করা হচ্ছে উপরাষ্ট্রপতির নজরে বিষয়টি আনার জন্যই এই কাজ করা হয়েছে | প্রসঙ্গত, দিল্লির এই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার মত গুরুতর অভিযেোগ থাকার পর তাঁকে এখানে স্থায়ী উপাচার্য হিসেবে এই ঐতিহ্যশালী বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানোর জন্য ২০১৬ সালে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়তে হয় কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রককে | অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পরও কীভাবে এত গুরকুত্বপূর্ণ পদে তাঁকে নিয়োগ করল সরকার,তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন দিল্লির রাষ্ট্রবিজ্ঞানেরই আরেক অধ্যাপিকা নিবেদিতা মেনন | রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক বিদ্যুত চক্রবর্তীকে ওই অভিযোগের জন্য একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ডিরেক্টরের পদ খোয়াতে হয়েছিল সেই সময় |

শুক্রবারে বিশ্বভারতীর পোস্টার কান্ড নিয়ে যদিও মুখ খুলতে চাননি কর্তপক্ষ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here