পুলিশের সঙ্গে খন্ডযুদ্ধ জনতার,গুলিবিদ্ধ বিজেপি কর্মী,প্রতিবাদে রাস্তায় বিক্ষোভ বিজেপির

0

Last Updated on

ইইলেকট্রিকের কাজ সেরে পাশের গ্রাম থেকে একটু রাত করে ফিরছিলেন এক যুবক| নিজের গ্রামে ঢুকতেই তাঁর পিছন পিছন পুলিশও এসে পৌঁছয় | কোথা থেকে আসছে জিজ্ঞাসা করার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয় এলোপাথাড়ি চড়-থাপ্পর | কেন মারছে পুলিশ , প্রশ্ন করাতেও থামেনি মারধর | সেখান থেকেই অশান্তির সূত্রপাত | হাসপাতালের মাটিতে বসে সে কথাই বলছিলেন জয়দেব মালিক | আর যে যুবকের কথা শোনাচ্ছিলেন তিনি ,তার নাম শুভেন্দু মালিক | সম্পর্কে তার ভাগ্নে |

বুধবার রাতে পুলিশ জনতা খন্ডযুদ্ধে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গুঁড়াপ থানার মদনমোহন তলা | জয়দেব বলতে থাকেন,তাঁর ভাগ্নেকে মারার প্রতিবাদ করেন ওই গ্রামের অন্য বাসিন্দারা | তাঁদের সঙ্গে এক কথা দু কথার পরই হাতাহাতি শুরু হয়ে যায় দুপক্ষের | পুলিশ বলে পাশের গ্রামে খানিক আগে যে মারপিট হয়েছে তাতে নাকি শুভেন্দুও ছিল | যদিও এই অভিযোগ অসত্যই বলছেন মামা জয়দেব | পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতি এমন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছয় যে তা আয়ত্তের বাইরে চলে যাওয়ার আশঙ্কায় ওই ঘটনাস্থলে থাকা গুঁড়াপের মেজবাবুই নাকি গুলি চালানোর নির্দেশ দেন | তারপর আর মনে না থাকলেও গুলিবিদ্ধ জয়দেবকে হাসপাতালে নিয়ে আসে গ্রামবাসীরাই |

মদনমোহনতলার ওই এলাকা হালে পদ্ম শিবিরের দিকে ঝুঁকেছে বলেই কি এই হামলা প্রশ্ন জয়দেবের মনে ? কারণ তিনি নিজেও বিজেপিরই কর্মী বলেন জয়দেব | এই গুলি চালানোকে কেন্দ্র করে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করে উত্তেজিত জনতা | ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ কর্মীদেরও হেনস্থা করা হয় | তবে গুলি চালানোর কথা একেবারেই অস্বীকার করা হয়েছে পুলিশের তরফে | তাদের পাল্টা অভিযোগ, জনতা খেপে গিয়ে পুলিশের সার্ভিস রিভলভর ছিনিয়ে নিতে চেয়েছিল,যা প্রতিহত করতে গিয়েই অতর্কিতে গুলি চলে বলে দাবি তাদের |

বুধবারের এই ঘটনার জেরে এলাকায় বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা | রাস্তার উপর টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করা হয় | জয়দেব মালিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন | তাঁর মত অনেকেরই প্রশ্ন, বুধবারের সামান্য মারপিটের ঘটনায় পুলিশের অতিসক্রিয়তা নিয়ে | পুলিশের সামনে যেখানে রাজ্যের নানা প্রান্তে সংঘর্ষ হানাহানি ঘটে চলছে, সেখানে কোন রাজনৈতিক ইন্ধন ছাড়া পুলিশ কি সত্যিই কোনো অপরাধীর খোঁজে গিয়েছিল সেদিন ? বিজেপি নেতৃত্ব অবশ্য অভিযোগ করছেন, এক্ষেত্রে শাসক দলের কথা শুনে কাজ করেছে গুঁড়াপ থানার পুলিশ | জেনে-বুঝেই গুলি চালানো হয়েছে তাদের কর্মীদের উপর বলছেন কেউ কেউ |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here