বসিরহাটে এনআরসি-এর আতঙ্কে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর অভিযোগ এক ব্যক্তির

0
nrc-death-story

Last Updated on

রাইজিং বেঙ্গল ডেস্ক : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বাংলায় এনআরসি হবে না বলে অভয় দিয়েছেন রাজ্যবাসীকে | কিন্তু তাতেও যেন আতঙ্ক কমছে না মানুষের মন থেকে | জেলায় জেলায় রেশন কার্ডে করানোর ও প্রয়োজনীয় নথি জোগাড়ে হুড়োহুড়ি লক্ষ্য করা যাচ্ছে | আতঙ্কে শরীর খারাপ হচ্ছে বয়স্কদের | এমনকি মৃত্যু হয়ে গিয়েছে কয়েকজনের | তেমনই এনআরসির আতঙ্কে একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে বসিরহাট মহাকুমার মাটিয়া থানা এলাকার দক্ষিণ কৃপালপুরে | সেখানকার বাসিন্দা বছর ৩৬-এর মন্টু মন্ডল পেশায় একজন চাষী । মন্টু বাবু বেশ কয়েকদিন ধরেই জমির দলিল উপযুক্ত নথি,কাগজপত্র নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তায় ছিলেন । এ বিষয়ে বিগত কয়েকদিন ধরে বিডিও অফিসেও যাচ্ছিলেন সাহায্যের জন্য ।

আরও পড়ুন – পশ্চিমবঙ্গ ইসরায়েল নয়, ‘বাঙালি হিন্দুর হোমল্যান্ড’ তৈরি করার পথে বাধা বাঙালিরাই

শুক্রবার বিকেলে প্রয়োজনীয় নথি জোগাড় করতে বসিরহাট দু’নম্বর বিডিওর কাছে গিয়েছিলেন বলে জানাচ্ছেন তার স্ত্রী | এলাকার জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গেও কথা বলেছিলেন । ৭১ সালের পরে উপযুক্ত নথি না থাকায় দুশ্চিন্তা গ্রাস করেছিল মন্ডল পরিবারকে । তাঁর স্ত্রী মিনারা বিবি ছোট তিনটে কন্যা সন্তান ও এক ছেলে সহ এই কৃষক পরিবারে একমাত্র উপার্জনশীল ব্যক্তি ছিলেন মন্টু । বারংবার চেষ্টা করেও উপযুক্ত কাগজ পত্র না মেলায় মন্টু মন্ডল শুক্রবার রাতে ভালো করে ঘুমোতে পারেননি বলে অভিযোগ মিনারা বিবির ।

আরও পড়ুন – পশ্চিমবঙ্গে তো বটেই, এন আর সি প্রয়োজন দিল্লি, মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, কাশ্মীর, উত্তরপ্রদেশ, বিহারেও

শনিবার সকাল বেলাতেও মন্টু স্ত্রী মিনারা সঙ্গে বসে উপযুক্ত নথিপত্র নিয়েই কথা বলছিলেন । হঠাৎই কথা বলতে বলতেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর | চিকিৎসার কোনো সুযোগই মেলেনি,বলেন তার পরিবারের লোকেরা | । ওই চাষীর আকস্মিক মৃত্যুর ঘটনার জেরে গোটা এলাকাটিকেই আতঙ্ক গ্রাস করেছে | জানা গিয়েছে ওপার বাংলা থেকে আসা ওখানকার অনেক বাসিন্দাদের কাছেই সঠিক নথি নেই । এনআরসির প্রয়োজনীয় উপযুক্ত নথি জোগাড় করতে না পেরে দেশ ছাড়া হওয়ার আতঙ্কেই মৃত্যু হয়েছে তার স্বামীর,দাবি মিনারা বিবির |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here