নিরাপত্তার দাবিতে ভোটকর্মীদের এবার বিক্ষোভ উত্তর ২৪পরগনায়

0

Last Updated on

বারাসত: নিরাপত্তা সুনিশ্চিত না করা হলে ভোটের কাজে বয়কট করবেন বলে আগেই জেলা প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছিলেন শিক্ষক-শিক্ষা কর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্য মঞ্চ। তাঁদের সেই দাবি কর্ণপাত করেনি নির্বাচন প্রশাসন,অভিযোগ তেমনই। নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করানোর দাবিতে এবার পথে নামলেন তাঁরা| শনিবার বিকেলে বারাসতে জেলাশাসকের দফতরে বিক্ষোভ দেখালেন ভোট কর্মীরা তার আগে ব্যানার হাতে ভোট কর্মীরা মিছিল করে হাজির হয় জেলাশাসকের দপ্তরে।”নো সিআর‌পিএফ নো ইলেকশন ডিউটি” ব্যানার হাতে সংগঠনের নেতা অয়ন পাল বলেন, ভোটের কাজে নিযুক্ত ভোট কর্মীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে প্রায় দু’মাস আগে জেলা প্রশাসনের কাছে আর্জি জানানো হয়েছিল। কিন্তু সেখান থেকে কোন সদুত্তর না আসায় বাধ্য হয়েই এই পদক্ষেপ করেন তাঁরা। তাঁরা জানান, ভোটের কাজ করতে প্রস্তুত। কিন্তু তাঁদেরকে নিরাপত্তার বিষয়টি খোলোসা করে জানাতে হবে| কেন্দ্রীয় বাহিনী কত আসবে, কীভাবেই বা তাদের কাছে লাগানো হবে তার স্পষ্ট ধারণা না হলে কাজে যোগ দেওয়া মোটেই সম্ভব ন বলে জানিয়েছেন এই সংগঠকেরা| কার্যত পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর থেকেই ভোটকর্মীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে তাঁদের মত| ভোট কর্মী রাজকুমার রায়ের মৃত্যুর কিনারা হয়নি এখনও,সেকথাও স্মরণ করিয়ে দেন তাঁরা| এই অবস্থায় রাজ‍্যের সমস্ত ভোট কর্মীরা যথেষ্ট আতঙ্কিত। বনগাঁ‌ ও ব্যারাকপুর কেন্দ্রও এর থেকে আলাদা কিছু নয়| প্রতিটি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করানো না হলে ভোটের দিনে‌ও তাঁরা বিক্ষোভ দেখাবেন বলে আগাম জানান। এদিকে, নিরাপত্তার পাশাপাশি কেন্দ্র বাহিনী দিয়ে জেলার প্রতিটি বুথে ভোটের দাবিতে জেলাশাসকের দপ্তরে ডেপুটেশন দেন ভোট কর্মীরা। যদিও ভোটকর্মীদের অসন্তোষের কথা মাথায় রেখে ভোট কর্মীদের নিরাপত্তায় প্রাধান্য দেওয়ার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে তাদের ভোট করানোর দাবিও অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। প্রসঙ্গত, এর আগে বিভিন্ন জেলাতেও কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করানোর দাবিতে রাস্তায় নেমেছিলেন ভোট কর্মীরা|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here