বিধায়কদের শিবির বদলের পরই নানুরের রাস্তায় শক্তি পরীক্ষায় তৃণমূল

0

Last Updated on

দুটি লোকসভা আসন জেতার পরে নিজেদের গড় বীরভূমে বেকায়দায় শাসক শিবির| বুধবার দিল্লির সদর দফতরে মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের নানুরের প্রাক্তন বিধায়ক গদাধর হাজরা । পদ্ম শিবিরে গিয়েছেন লাভপুরের বিধায়ক মণিরুল ইসলামও| জোড়া ধাক্কা সামলাতে এবার পথে বীরভূম তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব| গদাধর মণিরুলরা বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরের দিনই বৃহস্পতিবার থেকেই রাস্তায় নামল কাজল ও তার অনুগামীরা । বলা ভালো নানুর বিধানসভা এলাকার বিভিন্ন রাস্তায় বীরভূম জেলা সহ-সভাপতি রাণা সিংহকে সঙ্গে নিয়ে শেখ কাজলরা নিজেদের অস্তিত্ব প্রমাণ করতে মরিয়া তৃণমূল। শিবির বদল করা বিধায়কদের জন্য দলের কোন সমস্যা হবেনা বলেন রাণা| এই দুজনের মধ্যে গদাধর দুবছর ধরেই রাজনীতির সংস্রবে নেই| তাই তাধের দাবি, সাধারণ ক্রমীরা তৃণমূলের মূল স্রোতের সঙ্গে বীরভূমেই রয়েছেন| বিধানসভা নির্বাচনে পরাজয়ের পরেও দল গদাধরকে নানা পদে বসিয়েছে| গুরুত্ব বাড়িয়েছে দলে| তারপরও দলত্যাগের সিদ্ধান্তকে মোটেই ভালো চাখো দেখবেন না বীরভূমবাসী তা নিয়ে একপ্রকার নিশ্চিন্ত বীভূমের তৃণমূল নেতৃত্ব| অন্যদিকে বিধানসভা নির্বাচনে লাভপুর থেকে মনোনীত বিধায়ক মনিরুল ইসলামকেও দল যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়েছে দল| যদিও পাথরচাপরী ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ও পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গ খাদি দফতরের পদে আসীন মণিরুলকে বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের অনুগামীরা দলে কোণঠাসা করে ফেলেছিল বেশ কিছু সময় ধরে| উল্টোদিকে কাজল শেখের সঙ্গে অনুব্রত মন্ডলের বৈঠকই কি গদাধর হাজরার দলত্যাগের মুখ্য কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে? কারণ দলের অন্দরে গদাধর ও কাজল শেখের গোষ্ঠীকোন্দল অজানা নয় কারোরই| মুখে যাই বলুন তৃণমূল নেতৃত্ব একে একে বিধায়কদের শিবির বদল কপালে চিন্তার ভাঁজ চওড়া করছে নেতৃত্বের|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here