লুকোচুরি শেষে পুলিশের জালে দুর্গাপুরের দুই কুখ্যাত লোহা মাফিয়া

0

Last Updated on

রাইজিং বেঙ্গল ডেস্ক: বন্ধ কারখানা থেকে যন্ত্রাংশ চুরি নতুন কিছু নয় এরাজ্যে| দমদমের পরিত্যক্ত কারখানার ভিতর থেকে দামী দামী যন্ত্রাংশ কয়েক রাত আগেও নাকি কারা যেন ট্রাক ঢুকিয়ে রীতিমত হাপিশ করে দিত| এবার শহর থেকে দূরে হলে একই ঘটনার সাক্ষী থাকছিল কোকওভেন থানার বাসিন্দারা | জানা যায়, কোকওভেন থানার অন্তর্গত বেসরকারি বন্ধ কারখানা ভাস্কর শ্রাচী প্রাইভেট লিমিটেড থেকে প্রতিদিন নিয়ম করে চুরি যাচ্ছিল বহুমুল্যের ধাতব যন্ত্রাংশ। এই কারখানা থেকে প্রতিনিয়ত চুরির ঘটনায় এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করে পুলিশের বিরুদ্ধে । সমস্যার সমাধান না হওয়ায় পথ অবরোধও করেন তারা । কিন্তু তারপরেও চুরির ঘটনা বন্ধ করা যাচ্ছিল না কিছুতেই | অনেক প্রচেষ্টার পর অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ল কুখ্যাত লোহা মাফিয়া ।

আরও পড়ুন: গণপিটুনি ঠেকাতে আইনের দাবাই দুর্গাপুর কমিশনারেটের https://risingbengal.in/jela/gonopituni-thekate-dpc-er-notun-dabai/

ওয়ারিয়া এলাকার কুখ্যাত দুই লোহা মাফিয়া সর্বন ও বিকাশ চৌধুরী এই লোহা চুরি করছিল বলে স্থানীয় সূত্রে অভিযোগ। বৃহস্পতিবার রাতে এই বন্ধ বেসরকারি কারখানা থেকে বহুমুল্যের যন্ত্রাংশ চুরি করে পালাবার সময় একটি ধাতব যন্ত্রাংশ বোঝাই গাড়ি সহ দুজনকে আটক করে দুর্গাপুর থানার ডিটিপিএস ফাঁড়ির পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতেই পুলিশের হাতে ধরা পড়ে কুখ্যাত মাফিয়া বিকাশ চৌধুরী ও মুন্না চৌধুরী। তাদেরকে ৩৭৯/৪১১/৪১৩/৪১৪/১২০ বি ধারায় অভিযুক্ত করে দুর্গাপুর আদালতে তোলা হয়| বিচারক তাদের দুজনের মধ্যে বিকাশ চৌধুরীকে ৫ দিনের পুলিশি হেফাজত ও মুন্না চৌধুরীকে ৫ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়। এখনও অধরা আরেক অভিযুক্ত সর্বন চৌধুরী। দীর্ঘদিন ধরে রাতুড়িয়া-অঙ্গদপুর শিল্পতালুক এলাকার বন্ধ ও চালু কারখানাগুলোতে এই সর্বন চৌধুরী, বিকাশ চৌধুরীদের দল তান্ডব চালাচ্ছিল বলে অভিযোগ। এই নিয়ে শিল্পপতি মহলেও বিস্তর ক্ষোভ ছিল বলে জানা গিয়েছে | এই দুই চাঁইকে ধরার পর এলাকার এই উপদ্রব কমবে বলে আশাবাদী সিল্পপতি সহ সাধারণ মানুষ |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here