একবিংশ শতকেও নরবলির প্রচেষ্টা !

1
durgapur

Last Updated on

নিজস্ব সংবাদাতা; দূর্গাপুর; ২৮ শে আগষ্ট ২০১৯ : একবিংশ শতকে দাঁড়িয়েও কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা আমাদের প্রশ্নের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেয় আমরা কি সত্যিই সামনের দিকে এগোচ্ছি ? দুর্গাপুরের ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত অঙ্গদপুর গ্রামের ঘটনা তারই মধ্যে একটি । তন্ত্র সাধনার জন্য অর্থের বিনিময় এক যুবতীকে তার পরিবারের থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠে এক তান্ত্রিকের দিকে । এই ঘটনার সাথে যুক্ত থাকা তিন দুষ্কৃতী প্রবল জনরোষের মুখে পড়ে বলে স্থানীয় সূত্রের খবর। এই তিন দুষ্কৃতীদের মধ্যে একজন মহিলা বলে জানা গেছে ।

অঙ্গদপুরের বাসিন্দা ঐ যুবতী দুর্গাপুর নগর নিগমের ১০০ দিনের কাজের অন্তর্ভুক্ত দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে পর্যবেক্ষকের কাজ করত । বিগত এক মাস ধরে সেখানকারই এক কর্মীর মাধ্যমে যুবতীকে বারংবার অর্থমূল্যে ক্রয় করার প্রস্তাব দিতে থাকে কিছু বহিরাগত। ঐ যুবতীর বিনিময়ে নগদ ছয় লক্ষ টাকা তার পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে প্রলোভনে জাল বিস্তার করে ওই বহিরাগত ব্যক্তিরা। কিন্তু বড় অংকের অর্থের টোপ না গেলায় গত মঙ্গলবার রাত ন’টা নাগাদ উল্লিখিত তিন দুষ্কৃতী সরাসরি চড়াও হয় ওই যুবতীর বাড়িতে। উপায়ন্তর না দেখে ঘরের দরজা আটকে স্থানীয় ক্লাবের ছেলেদের খবর দেন মেয়েটির বাবা অমর বাউরী।এরপরই ঐ তিন দুষ্কৃতী জনরোষের মুখে পড়ে এবং স্থানীয় বাসিন্দা ও ক্লাবের ছেলেরা ঐ তিন দুষ্কৃতী কে মারধর করেছে বলেও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়। মেয়েটির জ্যাঠতুতো দাদা রাকেশ বাউরী যা বলেন তাতে মনে প্রশ্ন জাগে সত্যিই কি আমরা সভ্য সমাজের বাসিন্দা ! যে সমাজে আজও কিনা নরবলি দেওয়ার উদ্দেশ্যে একটি মেয়েকে অর্থের বিনিময় কেনার প্রস্তাব দেওয়া হয় তারই পরিবারের কাছে ! ঐ যুবতীও সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলে, বেশ কিছুদিন ধরেই অর্থের প্রলোভন দেখানো হচ্ছিল তার পরিবারকে তাকে কেনার উদ্দেশ্যে।

এলাকাটি দূর্গাপুরের কোকওভেন থানার অন্তর্গত । এই পুরো বিষয়টি কোকওভেন পুলিশ স্টেশনে জানানো হয়েছে । পুলিশ পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। এই দলে মোট ১০ জন সদস্য রয়েছে বলে সূত্রের খবর। এই ঘটনার জেরে স্থানীয় বাসিন্দারাও এলাকার মেয়েদের নিরাপত্তা নিয়ে যথেষ্ট চিন্তিত; কারণ তাদের ধারণা ওই যুবতীকে কেনার উদ্দেশ্যে একটি মেয়ে পাচারকারী দালালচক্র বেশ কয়েকদিন ধরেই এলাকার ওপর নজরদারি চালাচ্ছিল। বহিরাগত কয়েকজন পুরুষ মহিলাকে বেশ কিছুদিন ধরেই এলাকায় টহলদারী করতে দেখেই তাদের এই অনুমান। ঘটনায় আতঙ্কিত এলাকাবাসী মেয়েদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার দাবী জানায় প্রশাসনের কাছে । স্বাভাবিকভাবেই এই পুরো ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় দুর্গাপুরের অঙ্গদপুর রাতুরিয়া শিল্পতালুকে।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here