কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতা করুন ট্রাম্প, চান মার্কিন সাংসদরা

0
donald trump

Last Updated on

মার্কিন প্রেসিডেণ্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কাশ্মীর সমস্যার সমাধাণসূত্র বার করতে মধ্যস্থতা করুন ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে, এমনটাই চান কিছু মার্কিন সেনেটর শনিবার। পাকিস্তানের করাচী থেকে প্রকাশিত হওয়া ‘দ্য ডন’ পত্রিকা এমনটাই দাবী করলো তাদের একটি প্রতিবেদনে। ঐ পত্রিকার মতে মতে ভারতের অন্তর্ভূক্ত কাশ্মীরের সাধারণ মানুষের অধিকার নিয়ে ‘চিন্তিত’ ক্রিস ভ্যান হোলিন, টোড ইয়ং, বেন কার্ডিন এবং লিন্ডসে গ্রাহামের মত সেনেটররা। তারা চান, ৫ই আগষ্টে ধারা ৩৭০ প্রত্যাহার করার পর থেকে তৈরি হওয়া পরিস্থিতি এড়াতে ট্রাম্প অবিলম্বে মোদীর সাথে কথা বলুন এবং যতদ্রুত সম্ভব ইণ্টারনেট চালু করা, ১৪৪ ধারা তুলে নেওয়া থেকে শুরু করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করুন।

আরও পড়ুন:
https://risingbengal.in/durgapujar-samay-pariksha-na-rakhar-dabite-sankhyalaghu-hinduder-manabbandhan-bangladeshe/

ঐ প্রতিবেদনে আরো দাবী করা হয়েছে ভারতীয় বংশোদ্ভুত প্রমিলা জয়পাল অন্য একটি চিঠিতে প্রসিডেণ্টকে লিখেছেন অবিলম্বে বিদেশ সচিব মাইক পম্পেওকে বলে ভারতের উপর চাপ সৃষ্টি করার কথা এবং তিনি যাতে কাশ্মীরের অবস্থা বুঝে মোদীকে অনুরোধ করেন ব্যবস্থা নেন সে ব্যপারে। ট্রাম্পকে দেওয়া চিঠিতে ট্রাম্পের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক সহায়ক সেনোটর গ্রাহাম এবং করাচী বংশোদ্ভুত সাংসদ ভ্যান হোলিন ট্রাম্পকে তার ২২য়ে জুলাইতে করা মন্তব্যও মনে পড়িয়ে দেন।

আরও পড়ুন:
https://risingbengal.in/saudi-arabia-te-giye-bharatiya-panya-boycott-er-dak-pak-sanshade/

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ট্রাম্প ২২য়ে জুলাই কাশ্মীর নিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার এই দুটি দেশের মধ্যস্থতা করার কথা বলেন। চিঠিতে আরো বলা আছে ৫ই আগষ্ট ভারত জোর করে ৩৭০ উঠিয়ে দেয় এবং বহুসংখ্যক সেনা মোতায়েন করে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে ট্রাম্প বা মার্কিন প্রশাসন কি আদৌ ভারতের মত একটি দেশের সার্বভৌম সিদ্ধান্তে হস্তক্ষেপ করতে পারে কিনা?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here