কাশ্মীর ইস্যুতে শান্তির দূত মালালার মিথ্যে পোস্ট

0

Last Updated on

লেট কাশ্মীর স্পিক | হ্যাশট্যাগ দিয়ে কাশ্মীরের মহিলা ও শিশুদের জন্য নতুন করে তার ভাবনাকে এই ক্যাম্পেনেই উসকে দিয়েছেন ২২বছর বয়সী রাষ্ট্রসংঘের শান্তির দূত মালালা ইউসুফজাই | কাশ্মীরে ৩৭০বিলোপের পর থেকেই তার বিরোদীতা করে ভারতের বিরুদ্ধে সরব মালালা | কিন্তু কাশ্মীরের প্রতি সমবেদনা ও ভারতীয় প্রশাসনকে খারাপ দেখাতে গিয়ে মস্ত বড় ভুল করে বসলেন তিনি | শনিবার একটি ট্যুইটের মাধ্যমে তিনি জানান,কাশ্মীরের তিনটি মেয়ের সঙ্গে তিনি সরাসরি কথা বলে জানতে পারেন যে তারা স্কুল যেতে পারছে না | কাশ্মীরের জনজীবন যেন স্তব্ধ হয়ে আছে | তারা বুঝে উঠতেই পারছেন না ঠিক কি হচ্ছে সেখানে | এই অবধি যাও বা ঠিক ছিল তার পরের যে ট্যুইট করেন মালালা বিতর্ক দানা বাঁধে সেটি নিয়ে | সেখানে জনৈক ছাত্রীটি বলে যে গত ১২ই আগস্ট স্কুলের একটি পরীক্ষা সে দিতে পারেনি | বড় হয়ে একজন ভালো লেখিকা হতে চায় সেই ছাত্রী কিন্তু তাদের এই পরিস্থিতি সেটির বড় অন্তরায় বলে নাকি দাবি করেছেন ছাত্রীটি | মালালা ভারত বিরোধী গল্প বানাতে গিয়ে বোধ হয় ভুলেই গিয়েছেন যে সেদিন গোটা দেশব্যাপী ছুটির দিন ছিল বকরি ইদ বা ইদ-উজ-জোহার জন্য |

প্রশ্ন উঠছে, রাষ্ট্রসংঘের শান্তির দূত হিসেবে চিহ্ণিত মালালার এই বৈষম্যমূলক আচরণের পরও কি তাঁর গ্রহণযোগ্যতা অটুট থাকবে ? মালালা বলেছেন কাশ্মীরে একদিকে ব্ল্যাকআউট চলছে,তবে কি করে যোগাযোগ করলেন কাশ্মীরের বিশিষ্ট সাংবাদিক ও এই মেয়েদের সঙ্গে ? পরস্পর বিরোধী কথাগুলো থেকেই কি প্রমাণিত হয় না মালালার সবকটি পোস্টের বাস্তব ভিত্তি সত্যিই খুব নড়বড়ে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here