বার্মিংহামে রাম মন্দির আক্রমণের ঘটনায় চুপ কেন বিদেশি সংবাদমাধ্যম ?

0

Last Updated on

ভারতে কেন্দ্রীয় সরকার বা বিজেপি সরকারের অধীনে কতটা নিরাপদ মুসলিমরা তা নিয়ে বিদেশি সংবাদমাধ্যমেরা চুলচেরা বিশ্লেষণে নেমে পড়েছেন | সাম্প্রতিক একটি রিপোর্টে বিবিসি দাবি করেছে যে ২০১৫-২০১৮ পর্যন্ত এ দেশের ১২টি রাজ্যে ৩৬ জন সংখ্যালঘু প্রাণ হারিয়েছেন অসহিষ্ণুতার কারণে | কিন্তু সেই সংবাদমাধ্যমে হিন্দু মন্দির কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হল সাম্প্রতিক দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে দিল্লিতে তা নিয়ে কোন উচ্চবাচ্য দেখা যায়নি | দেশের কথা না হয় ছেড়ে দেওয়া গেল | বিদেশের মাটিতে ধ্বংস করা হচ্ছে হিন্দু মন্দির | এই শিরোনামেও এক লাইন খরচ করেছেন কোন বিদেশি পত্র-পত্রিকা,তা বুক ঠুকে কেউ বলতে পারবেন না |

পরিসংখ্যান বলছে, গত একমাসের মধ্যে বার্মিংহামে তিনটি এমন ঘটনা ঘটেছে যেখানে হিন্দু মন্দিরে ভাঙচুর ঘটানো হয়েছে | সেখানে হিন্দু জনগোষ্ঠীর নেতাদের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে ,এমনকি তাঁদের উপর হামলার আশঙ্কা পর্যন্ত করছে সে দেশের প্রশাসন | খোদ ইংল্যান্ডে শেষের ঘটনাটিতে শ্রী রাম মন্দিরে ভাঙচুর চালানো হয় | ওয়ালসালের এই মন্দিরে ভাঙচুরের ঘটনায় যথেষ্ট উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন দি হিন্দিু ফোরাম অফ ব্রিটেনের সদস্যরা | প্রাশসনকে অভিযুক্তদের চিহ্ণিত করে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন তাঁরা | স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম থেকে দেখা গিয়েছে ,রাম মূর্তিকে সেখানে চূর্ণ বিচূর্ণ করা হয়েছে | নিরাপত্তারক্ষীদের বক্তব্য, হকি স্টিক বা ব্যাট দিয়ে মেরে এই অপকর্মটি ঘটানো হয়েছে |
এর ঠিক কয়েকদিন আগেই ওয়েম্বলেতে শ্রী বল্লভ নিধি মন্দিরেও একই ভাবে ভাঙচুর চালানো হয়েছিল বলে জানানো হয় এইএফবির তরফে | গোটা বিষয় নিয়ে তাঁরা ইতিমধ্যেই সেখানকার স্বরাষ্ট্রদফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন | নিরাপত্তা জোরদার করার কথা বলা হয়েছে তাঁদের তরফে |
প্রসঙ্গত শুধু ইংল্যান্ড নয়, চলতি বছরের প্রথমেই মার্কিন মুলুকের কেন্টাকিতেও একটি হিন্দু মন্দিরে বিদ্বেষমূলক হামলার ঘটনা ঘটেছিল | কোন ক্ষেত্রেই স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম ও ভারতের কয়েকটি প্রথম শ্রেণীর দৈনিক ছাড়া এই সংবাদ পরিবেশিত হয়নি |

প্রশ্ন উঠছে , নরেন্দ্র মোদি তথা বিজেপির জমানায় মুসলিমরা ভালো থাকবেন না এই বার্তাটি তবে কি সুকৌশলে দেশের বাইরেও পৌঁছে দিতেই এ দেশের সংখ্যালঘু মুসলিমদের আক্রান্ত হওয়ার গল্পকে ফলাও করে ছাপছে বিদেশি সংবাদ মাধ্যম গুলি ? আর তা থেকেই কি দিনে দিনে বাড়ছে বিদেশের মাটিতে হিন্দু মন্দির আক্রমণের মত ঘটনা? উত্তর দেবে সময় |

ছবি সৌজন্য: metro.uk

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here