১০মিনিটে পাঁচ মাইল! বিশ্বে প্রথম ড্রোন বাহিত কিডনির সফল প্রতিস্থাপন

0

Last Updated on

বড় বড় রাজনৈতিক সভাগুলিতে ড্রোনের ব্যবহার অনেকেই দেখেছেন|মূলত নিরাপত্তার বিষয়টি খতিযে দেখতে ড্রোন ব্যহবার করে থাকেন প্রশাসন| আবার কখনও বা বিপুল লোক সমাগম বোঝাতে কোন কোন রাজনৈতিক দল ড্রোন-ক্যামেরা ব্যবহার করে থাকেন| কিন্তু আরও কিছুটা এগিয়ে ভাবুন| এই ধরুন সুইগি বা জোমাটোর পরিবর্তে আপনার অর্ডারের পিজাটি নিয়ে উড়ে এল একটি ড্রোন| এরকম আকছার হচ্ছে| বিশ্বাস করুন| খোদ মার্কিনিরা অর্ডার করে এই ড্রোনের সাহায্যে পিজার মত লোভনীয় খাদ্য,তাঁরা দৈনন্দিন পাচ্ছেন হাতের কাছেই|

মোরিল্যান্ড ইউনিভার্সিটির একদল ডাক্তার ও ইঞ্জিনিয়ার আরও কিছু ধাপ এগিয়ে এবার বানিয়ে ফেলেছেন একটি কাস্টমাইজড ড্রোন| কী করবে সেই ড্রোন? অঙ্গ প্রতিস্থাপনে প্রয়োজনীয় অঙ্গ নিয়ে আসার মত গুরুদায়িত্ব পালন করবে সে| শুধু সফলভাবে নিয়েই আসবে না শেন দৃষ্টি রাখবে তার বয়ে নিয়ে আসা অঙ্গের দিকেও| বিশ্বের প্রথম ড্রোনবাহিত কিডনির সফল অস্ত্রোপচার হল বাল্টিমোরের ইউনিভার্সিটি অফ মেরিল্যাণ্ড মেডিক্যাল সেন্টারে| লিভিং লিগ্যাসি ফাউন্ডেশন থেকে ৪৪বছর বয়সী এক ব্যক্তির কিডনি নিয়ে ২ মাইল উড়ে মাত্র দশ মিনিটে সেই ড্রোন পৌঁছল এই মেডিক্যাল সেন্টারে| ১৯শে এপ্রিল ঘটল এই বিরল ঘটনা | উড়ে আসা কিডনি দিয়ে সফলভাবে অস্ত্রপচার সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অফ মেরিল্যা্ণ্ডের শল্য চিকিতসক রল্ফ এন বার্থ| এই ড্রোন ব্যবহারে অঙ্গ প্রতিস্থাপনে সাফল্যের হার অনেক বাড়বে বলে আশা তাঁদের| বর্তমানে দান করা অঙ্গের মাত্র ১.৫শতাংশ কাজে লাগানো সম্ভব হয়| কারণ সময় খুব বড় হয়ে দাঁড়ায় এক্ষেত্রে| রাস্তা দিয়ে বা বায়ুপথে আনার সময় অনেক রকম নিয়মকানুনের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়| যাতে অনেকটা সময় নষ্ট হয় বলে আক্ষেপ তাঁদের| আর তাতেই অধিকাংশ ক্ষেত্রে সেই অঙ্গটি প্রতিস্থাপনযোগ্য থাকেনা| তাই অদূর ভবিষ্যতে ড্রোন এ কাজে নতুন দিশা দেখাবে বলে মনে করছেন এই বৈজ্ঞানীকেরা|

ছবি সৌজন্য: UNIVERSITY OF MARYLAND

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here