উদ্বৃত্ত শ্রমিকের কারণে আয় কমছে নির্মাণ শিল্পে

    0

    Last Updated on

    উত্তম মণ্ডল

    কৃষি আমাদের ভিত্তি, শিল্প আমাদের ভবিষ্যৎ! বিগত বাম আমলে বাংলায় বহু চর্চিত একটি শব্দ। কিন্তু কৃষি থেকে কৃষকের পিছু হঠা শুরু হয়েছিল বাম আমলেই। এর একটা বড়ো কারণ “অপারেশন বর্গা।” বর্গার কোনো সিলিং বাঁধা হলো না, উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রাও ঠিক করা হলো না বর্গাদারের কাছে। এমনকি, জমির মালিক অনেক সময় জানতেই পারলো না, তার জমিতে কে বর্গা রেকর্ড করিয়ে নিল। ফলে দু’বিঘে থেকে বিশ বিঘে–সব জমি মালিকের ঘাড়েই চেপে বসলো “বর্গাদার” নামের এক ভয়ংকর জীব। এই “জীব”-টি এক সময় হয়তো ওই জমি মালিকের “কৃষাণ” ছিলেন, পরে সরকারি সৌজন্যে হলেন “কমরেড্।” আওয়াজ উঠলো, “লাঙল যার, জমি তার।” একসময়ের সাধের “জমি” কমরেড্ বর্গাদারের হাতে পড়ে হয়ে উঠলো “যম।” বেচারা কৃষক তখন রবীন্দ্রনাথের “দু’বিঘা জমি’-র উপেনের মতো ভিটেমাটি ছাড়লেন। পেটের টানে পাড়ি দিলেন শহরে।
    কৃষি থেকে শুধু মালিক নয়, কয়েক বছর পর শ্রমিকরাও পালালেন শহরে। কারণ, জমি চাষ করতে যে পু়ঁজি লাগে, তা বর্গাদারের ছিল না। সরকারি উদ্যোগে গ্রামীণ ব‍্যাঙ্ক থেকে ঋণ দেওয়ার ব‍্যবস্থা হলো। সে ঋণের টাকা আর সরকারি মিনিকেট ধান-গম-বাদাম বীজ সব গেল বর্গাদারের পেটে। বামেদের বর্গা-বিপ্লব এখানেই শেষ।
    কৃষি থেকে পালিয়ে যারা শহরে এসে যারা নির্মাণ শ্রমিক হলো, বিগত ১৯৯০ সাল থেকে ২০০০ সাল পযর্ন্ত তাদের বেশ ভালোই রোজগার হচ্ছিল তখন। তারপরেই রোজগারে এলো ভাঁটার টান। এর কারণ একটাই, শ্রমিক বেশি, কাজ কম। ততদিনে শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয়, সারা দেশেই নির্মাণ শিল্পে উদ্বৃত্ত হয়ে গেছে শ্রমিক। কৃষি শ্রমিকদের একটা বড়ো অংশ নাম লিখিয়েছেন নির্মাণ শিল্পের খাতায়। তাই স্বাভাবিকভাবেই নির্মাণ শিল্পে উদ্বৃত্ত হয়ে গেছে শ্রমিক। সেজন্য আয়ও কমেছে তাদের।
    “পিরিয়ডিক লেবার ফোর্স সার্ভে” থেকে যে পরিসংখ্যান উঠে এসেছে, তা এইরকম :
    সাল শ্রমিক সংখ‍্যা
    ———————————————————————
    ১৯৯৯–২০০০ – ১ কোটি ৭০ লক্ষ
    ২০০৪–২০০৫ – ২ কোটি ৬৫ লক্ষ
    ২০১১–২০১২ – ৫ কোটি ৩ লক্ষ
    ২০১৭–২০১৮ – ৫ কোটি ৪৩ লক্ষ
    এই উদ্বৃত্ত শ্রমিকের কারণে নির্মাণ শিল্পে এবার শুধুমাত্র দক্ষ শ্রমিকদেরই আয় বাড়বে, অন্যদিকে অদক্ষ থেকে ক‍্যাজুয়াল শ্রমিকদের আয় কমবে। এমনিতেই ২০১৭-১৮ সাল পর্যন্ত এই নির্মাণ শিল্পের সঙ্গে যুক্ত শ্রমিকদের বেতন বাড়েনি, বেড়েছে শুধু শ্রমিকের সংখ্যা।
    উদ্বৃত্ত শ্রমিকের কারণে নির্মাণ শিল্পের সঙ্গে যুক্ত শ্রমিকদের এখন এটাই বর্তমান চিত্র।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here