শহর জুড়ে স্বাস্থ্য পরিষেবার অচলাবস্থা ও বিজেপির লালবাজার অভিযানের চাপ কি নিতে পারবে পুলিশ ?

    0

    Last Updated on

    স্বাস্থ্য অধিকর্তা,প্রতিমন্ত্রী কারোর মধ্যস্থতাতেই জট খুলল না এনআরএস মেডিক্যাল কলেজে| ২৪ঘন্টারও বেশি সময় ধরে অবস্থানে জুনিয়র ডাক্তারেরা| প্রভাব পড়েছে গোটা রাজ্যে| রাজ্যের সব সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বুধবার আউটডোর বন্ধ রাখার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ডাক্তারেরা তাতে সকাল থেকেই চরম দুর্ভোগে পড়তে হয় রোগীর আত্মীয়-পরিজনদের| কিন্তু নিজেদের তিনদফা দাবি থেকে কিছুতেই সরতে নারাজ নিরাপত্তার দাবিতে আন্দোলনরত ডাক্তারেরা| রাজ্যে যেখানে মানুষ মারা যাচ্ছে, সেখানে সবসময় ছুটে যান মুখ্যমন্ত্রী| তবে মৃত্যুর সহ্গে পাঞ্জা লড়া পরিবহ মুখার্জিকে দেখতে আসতে তাঁর এত সময় কেন লাগছে? আন্দোলনকারী ডাক্তারদের বিস্তর অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে| বুধবার সেই পুলিশেরই অ্যাসিড টেস্ট বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল |

    একদিকে যখন নিজেদের দাবি জিইয়ে রেখে হাসপাতলের পরিষেবা স্তব্ধ করেছেন ডাক্তারেরা, অন্যদিকে বিজেপির গণতন্ত্র বাঁচাও লালাবাজার অভিযান রাজপথে | সর্বশক্তি দিয়ে এই মিছিলকে আটকাতে প্রস্তুত কলকাতা পুলিশের সব বিভাগ | প্রশ্ন উঠছে যে পুলিশ কয়েকজন জনতার হাত থেকে জুনিয়র ডাক্তারদের রক্ষা করতে পারেননা ,তাঁরা সক্ষম হবে তো কলকাতার রাজপথ সুরক্ষিত রাখতে ? আন্দোলনরত ডাক্তারদের পুলিশের হাত থেকে লাঠি কেড়ে নিয়ে নাকি তাদের সহকর্মীকে পিটিয়েছে রোগীর পরিবারের লোকজনেরা | রাজ্যের নানা জায়গায় পুলিশের নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে সরব সাধারণ মানুষ থেকে রাজনৈতিক দল| বহুবার শাসক দলের হয়ে কাজ করার অভিযোগও উঠেছে খাকি উর্দিধারীদের বিরুদ্ধে | জেলায় জেলায় ছড়িয়ে পড়ার হিংসায় পুলিশের নিস্পৃহ ভূমিকার কথা একাধিকবার প্রকাশ্যে বলেছেন খোদ তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরাও | যদিও পুলিশমন্ত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী পুলিশের ভূমিকা নিয়ে কখনই কোথাও অসন্তোষ প্রকাশ করেননি| তাঁর সঙ্গে সবসময় ঘোরা রাজ্যের ডিজির মুখেও কখনও পুলিশের বিরুদ্ধে তৈরি হওয়া এত ক্ষোভ প্রশমিত করা কোনো আগ্রহ দেখা যায়নি বলেই সমালোচনা করে থাকেন বিরোধীরা | এই পরিস্থিতিতে রাজপথে বিজেপির হাজারো সমর্থকদের লালবাজার অভিযানের ডাকে ঘটা কোন অশান্তিকে কতটা শক্ত হাতে রুখতে পারেন প্রশ্ন তা নিয়েও| একথা ভুললে চলবে না যে ১২ঘন্টার জন্য সরকারি বা বেসরকারি সমস্ত হাসপাতালের জরুরি পরিষেবা মিলবে না|

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here