নকল থেকে সাবধান হয়েও পূর্ব এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে অপরাধের আয় বছরে ন’হাজার কোটি ডলার!

    0

    Last Updated on

    উত্তম মণ্ডল

    পথে-ঘাটে আমরা হামেশাই শুনি, “নকল থেকে সাবধান!” শুনতে শুনতে আমরা এখন অভ‍্যস্ত হয়ে গেছি। কিন্তু অপরাধের আয় শুনলে এবার সত্যিই অবাক হতে হচ্ছে।

    স্থান: পূর্ব এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল। বহু সংগঠিত অপরাধচক্রের কর্মভূমি এই অঞ্চল। আর এই অপরাধচক্রের বছরে আয় হচ্ছে ৯,০০০ কোটি ডলার। খোদ রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্টেই প্রকাশিত হয়েছে এই তথ্য। সম্প্রতি রাষ্ট্রপুঞ্জের মাদক ও অপরাধ বিষয়ক সংস্থা বা সংক্ষেপে ইউ এন ও ডি সি একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে।

    “ট্রান্সন‍্যাশনাল অর্গানাইজড্ ক্রাইম ইন্ ইস্ট এশিয়া অ্যাণ্ড প‍্যাসিফিক—এ থ্রেট অ্যাসেসমেন্ট” শীর্ষক ওই রিপোর্টে সংশ্লিষ্ট এলাকার অপরাধচক্রের বার্ষিক আয়ের হিসেব তুলে ধরা হয়েছে। সেখানে দেখানো হয়েছে, অপরাধচক্রের আয়ের বড়ো উৎস হলো নকল পণ্যের ব‍্যবসা। এ থেকে আয় বছরে প্রায় ২৪৪০ কোটি ডলার।

    এরপর অবৈধ কাঠ উৎপাদন থেকে বছরে আয় ১৭০০ কোটি
    হেরোইন থেকে আয় বছরে ১৬৩০ কোটি।
    মাদক থেকে আয় বছরে ১৫০০ কোটি।
    নকল ওষুধ থেকে আয় বছরে ৫০০ কোটি।

    ইলেকট্রনিক্স সাজসরঞ্জের চোরা চালান বাবদ আয় বছরে ৩৭৫ কোটি।
    বন‍্যপ্রাণীর অবৈধ কারবার থেকে আয় বছরে ২৫০ কোটি।
    না, এখানেই শেষ নয়। এর বাইরে রয়েছে সীমান্তে মানুষ পাচার, পতিতাবৃত্তি, নারী পাচার থেকে বছরে লক্ষ লক্ষ ডলার আয়।

    কাজেই “নকল থেকে সাবধান” সতর্কবার্তায় আজ যে সত্যিই কাজ হচ্ছে না, রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্ট চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে। এ তো গেল বিশ্বের একটা অংশের হিসেব। এটি হিমশৈলের চূড়া মাত্র। এর বাইরে কত শত অপরাধের আয়ের হিসেব কে রাখে!

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here