এমন এক সন্দেহবাতিকগ্রস্ত কম্যুনিষ্ট যিনি হাত ধুতেন মদ দিয়ে

    0
    Nicolae Ceausescu

    Last Updated on

    শিবাজী প্রতিম

    পৃথিবীর ইতিহাস রচিত হয়েছে বহু উত্থান -পতনের মধ্যে দিয়ে। ইতিহাস সময়ে সময়ে বহু ডিক্টেটরের আবির্ভাব ঘটিয়েছে। যার ফলে সাধারণ মানুষের উপর নেমে এসেছে বহু শাস্তির খাঁড়া। আবার কালের নিয়মে পতনও হয়েছে তাদের। এমনই একজন ডিক্টেটর ছিলেন নিকোলাই চেসেস্কু ।তার অদ্ভূত সব অভ্যাসের জন্য ইতিহাস তাকে মনে রাখবে। নিকোলাই চেসেস্কু দীর্ঘ দুদশক ধরে রোমানিয়ার রাষ্ট্রপতি এবং রোমানিয়ান কমিউনিষ্ট পার্টির সর্বোচ্চ নেতা ছিলেন ।

    আরও পড়ুন :ভালো নেই ভেনেজুয়েলা


    দেশের নাগরিকদের ব্যাক্তি স্বাধীনতায় একেবারেই বিশ্বাসী ছিলেন না পূর্ব ইউরোপের এই দীর্ঘকালের বাম শাসিত রাষ্ট্রের নেতা। শোনা যায় তার পুলিশ নাকি গোপনে পার্কে বেড়াতে যাওয়া মানুষের উপরও নজর রাখতো। হয়তো কোনো দম্পতি বা প্রেমিক যুগল বসে আছে পার্কের বেঞ্চে। উল্টো দিকের বেঞ্চে খবর কাগজ হাতে, কাগজে করা ফুটো দিয়ে নজর রাখতো চেসেস্কুর পুলিশ। সার্বিক এই নজরদারীর ভীতি , চেসেস্কুর মৃত্যুর পরও কাটিয়ে উঠতে পারেনি রোমানিয়ার সাধারণ জনগণ।
    এ তো গেল কয়েক কথায় চেসেস্কুর রাষ্ট্রনীতি। তিনি এমন সব অভ্যাসের বশবর্তী ছিলেন যা সাধারণত দেখা যেত প্রাচীনকালের রাজা-রাজড়াদের মধ্যে। কারো সাথে হ্যাণ্ডশেক করার পর চেসেস্কু হাত ধুতেন মদ দিয়ে। শোনা যায় হাত ধোয়ার এই বাতিক তৈরি হয় সবাইকে সন্দেহের চোখে দেখার কারণে। হাতে হাত মিলিয়ে ইনফেকশনের ভয় থেকেই নাকি তিনি এই অভ্যাস রপ্ত করেন ।

    আরও পড়ুন :কমিউনিস্টদের খোঁজ পড়েছে

    তার এই অভ্যাসের হাত থেকে বাদ পড়েননি খোদ ব্রিটেনের রানীর হাতও ! তার সাথেও হ্যাণ্ডশেক করার পর তিনি নাকি মদ দিয়ে হাত ধুয়েছিলেন লণ্ডনের হোটেলে। হাত ধোয়ার বাতিকের জন্য তার ব্যাক্তিগত বাথরুমে জলের বদলে সবসময়ের সঙ্গী ছিল তার মদের বোতল। এ হেন ডিক্টেটরের শাসনে অতিষ্ঠ হয়ে সে দেশের জনগণ বিদ্রোহ করে বসে। এবং চেসেস্কুর পতনও হয়। তাকে গুলি করে মেরে ফেলা হয় গণবিচারের রায়ে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here