পরিবেশ সচেতনতা বৃদ্ধিতে স্কুটার নিয়ে দেশ ভ্রমণে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক

0

Last Updated on

গ্রীন ইন্ডিয়া, ক্লিন ইন্ডিয়া ও হেলথ ইন্ডিয়া দেশের এই তিনটি গুরুত্বপুর্ণ বিষয় সম্বন্ধে দেশের সমস্ত রাজ্যের মানুষকে সচেতন করতে স্কুটারে চেপে সুদূর তামিলনাড়ু থেকে প্রায় ২৩৭২ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে বালুরঘাটে এসে পৌঁছলেন তামিলনাডুর আন্নামালাই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ডঃ এস,সেলভাকুমার। উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের প্রধান ডঃ এস, সেলভাকুমারের লক্ষ্য, ২০০দিনের মধ্যে ১ লক্ষ ২০ হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে দেশের ২৯ টি রাজ্যের বাসিন্দাদের মধ্যে দেশেকে সবুজ,স্বচ্ছ ও স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করা| তামিলনাডুর কুড্ডালুর জেলার ভাদালুর এলাকার এই বাসিন্দা তামিলনাড়ু,অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গে যখন পৌঁছলেন ততদিনে মোট ২,৫২১ কিমি অতিক্রম করে ফেলেছেন| বাড়িতে তার ডাক্তার স্ত্রী শান্তি লতা ছাড়াও রয়েছেন পেশায় চিকিৎসক দুই ছেলে|বালরঘাট বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁর এই পরিক্রমার উদ্দেশ্য নিয়ে পড়ুয়াদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর পর শনিবার তিনি রওনা হন ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে হিলি পরিদর্শন করেন| শনাবির বিকেলেই এই অধ্যাপক রওনা হবেন সিকিমের উদ্দেশ্যে| সিকিম থেকে অসম হয়ে উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলি হয়ে উত্তরপ্রদেশ দিয়ে জন্মু -কাশ্মীর ঘুরে দিল্লি যাবেন বলে জানালেন রাইজিং বেঙ্গলের প্রতিনিধিকে|দিল্লিতে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে তাঁর সোজন্যমূলক সাক্ষাৎ করার কথা| এই সচেতনতামবলক ভ্রমণের উদ্দেশ্য ও প্রয়োজনীয়তা নিয়ে তিনি তুলে ধরতে চান রাষ্ট্রপতিকর কাছে,জানালেন বর্ষীয়ান এই অধ্যাপক|
যদিও তার এই পথ চলা এই প্রথম নয়। এর আগে ১৯৮৪ সালেও সাই-সাইকেলকে সম্বল করেই বেরিয়ে পড়েছিলেন সচেতনতা বৃদ্ধ করতে|দেশের বিভিন্ন অংশ পরিক্রমাও করেছিলেন বলে জানিয়েছেন তিনি| ২০০ দিনে ১লক্ষ ২০ হাজার কিমি অতিক্রম করলে যে গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রের্কডে তাঁর নাম নথিভুক্ত হবে হেসে বললেন সে কথাও|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here