এনকাউণ্টার : বাণিজ্যনগরীর দীর্ঘ কয়েকদশকের অপরাধজগতের কাহিনী (পর্ব-৫)

0
DAWOOD IBRAHIM

Last Updated on

শিবাজী প্রতিম

মাত্র দুবছরের চেষ্টাতেই মনোহর সুর্ভের মুম্বইয়ের এক অখ্যাত এবং অতি সাধারণ যুবক থেকে অন্যতম কুখ্যাত গ্যাংস্টারে নাটকীয় পরিবর্তন হয় যা যে কোনো বলিউডি থ্রিলারকে হার মানাবে। আশির দশকের শুরুর দিকে একদিকে যেমন কোঙ্কনি মনোহর সুর্ভের উত্থান হচ্ছে অন্যদিকে মুম্বই আণ্ডারওয়ার্ল্ডের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর এবং কুখ্যাত আরেকজনেরও নাটকীয় উত্থানের শুরুটাও একই সাথে হচ্ছে। ইতিহাস তাকে দাউদ ইব্রাহিম নামে চিনবে পরবর্তীকালে। ঘটনাচক্রে মুম্বই আণ্ডারওয়ার্ল্ডে দাউদের বিরুদ্ধ গোষ্ঠীর গ্যাং লিডার হিসেবেই মনোহর সুর্ভের নাম হয়।

আরও পড়ুন:এনকাউণ্টার : বাণিজ্যনগরীর দীর্ঘ কয়েকদশকের অপরাধজগতের কাহিনী (পর্ব-৪)

একদিকে মান্য সুর্ভে যেমন তার নিজের গ্যাং নিয়ে অপরাধের সাম্রাজ্য বিস্তারে ব্রতী একইরকমভাবে দাউদও পূর্বের দুই দশকের সবচয়ে প্রভাবশালী গ্যাংস্টার হাজি মস্তানের সঙ্গে তার অন্ধকার জগতের কাজকর্ম শুরু করতে চলেছে। তবে তার সঙ্গ বেশিদিন দাউদের ভাগ্যে ছিল না। কোনো কারণে দাউদের ভাই শাব্বির ইব্রাহিম কাস্করের কারণে দাউদ ও হাজির সম্পর্কে ফাটল দেখা দেয় এবং তা মুম্বইয়ের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর এবং কুখ্যাত গ্যাং ‘ডি কোম্পানি’র প্রতিষ্ঠাকে সুগম করে। অন্যদিকে প্রায় দুদশক ধরে হাজি মস্তানের গ্যাংয়ের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে মুম্বই আণ্ডারওয়ার্ল্ডে পাকাপাকিভাবে জায়গা করে নেওয়া পাঠান গ্যাংয়ের সাম্রাজ্যে ভাগ বসানোর উপক্রম করে সদ্যপ্রতিষ্ঠিত ‘ডি কোম্পানি’। তাই ডি কোম্পানির প্রভাবকে খর্ব করতে দুই কাস্কর ভাইকে দুনিয়া থেকেই সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা নেয় পাঠান গ্যাং। সেই কাজকে মান্যতা দিতে তারা তখনকার উঠতি গ্যাং লিডার মান্য সুর্ভেকে বরাত দেয়। কিন্তু শাব্বিরকে মেরে ফেলতে সমর্থ হলেও দাউদ অধরাই থেকে যায় মান্য সুর্ভের কাছে। পূর্বে যেরকমটা আলোচিত হয়েছে যে এতদিনের মুম্বই শহরের ইতিহাসে বেশ কয়েকটি গ্যাংয়ের প্রভাব সম্বন্ধে অবহিত হলেও তারা যেহেতু দুএকটা বিচ্ছিন্ন ঘটনাকে বাদ দিলে সরাসরি খুনোখুনিতে জড়ায়নি তাই পুলিশেরও তাদের নিয়ে খুব একটা মাতামাতি ছিল না। তবে মান্য সুর্ভে গ্যাংসহ একাধিক নতুন গ্যাংয়ের ক্রিয়াকলাপ দেখে তারা নড়েচড়ে বসতে বাধ্য হয়। ফলশ্রুতি হিসেবে ডি-কোম্পানির উপর আক্রমণের পরই পুলিশের ক্রিয়াকলাপ তাৎপর্যপূর্ণভাবে বৃদ্ধি পায়। আর সেকারণেই মান্য সুর্ভে খানিকটা হলেও নিজেকে এসব থেকে সরিয়ে ফেলে।

(চলবে)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here